দাদুভাই স্মৃতিপদক পাচ্ছেন তিনজন

প্রকাশিত: ফেব্রুয়ারি ৯, ২০২২; সময়: ২:৫০ pm |

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : জাতীয় শিশু কিশোর ও যুবকল্যাণ সংগঠন চাঁদের হাটের প্রতিষ্ঠাতা সাংবাদিক, ছড়াকার, গীতিকার ও নাট্যকার রফিকুল হক দাদুভাইয়ের স্মৃতির প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে চাঁদেরহাট কেন্দ্রীয় পরিষদ প্রতি বছর দাদুভাই স্মৃতি পদক প্রদানের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে। চলতি মাসেই অনুষ্ঠানের মাধ্যমে এই পদক প্রদান করা হবে।

এ বছর দাদুভাই স্মৃতি পদকের জন্য মনোনীত ব্যক্তিরা হলেন, সাংবাদিকতায় দৈনিক যুগান্তর পত্রিকার সম্পাদক ও জাতীয় প্রেস ক্লাবের সাবেক সভাপতি সাইফুল আলম, ছড়া সাহিত্যে (ছড়াকার) ফারুক হোসেন ও গান রচনায় (গীতিকার) মো. মঞ্জুর উল আলম চৌধুরী।

দাদুভাই যেসব মাধ্যমে সাফল্যের সঙ্গে কাজ করেছেন, সেসব মাধ্যমের বিভিন্ন ব্যক্তিত্বকে প্রতি বছর জানুয়ারিতে দাদুভাইয়ের জন্মদিনে এই পদক প্রদানের মাধ্যমে সম্মানিত করার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে।

জুরি বোর্ড প্রতি বছর দেশের একজন গীতিকার, সংগঠক, সাংবাদিক, নাট্যকার ও ছড়াকারকে পদক প্রদানের জন্য নির্বাচিত করবেন।

সাইফুল আলম
সাইফুল আলম ‘দৈনিক যুগান্তর’ পত্রিকার সম্পাদক এবং জাতীয় প্রেস ক্লাবের সাবেক সভাপতি। তিনি জাতীয় শিশু-কিশোর সংগঠন ‘চাঁদের হাট’-এর কেন্দ্রীয় আহ্বায়ক হিসেবে এক যুগ (১৯৭৯-১৯৯০) দায়িত্ব পালন করেছেন। তিনি শিশু কল্যাণ পরিষদের ব্যবস্থাপনা কমিটির যুগ্ম সম্পাদক ও সদস্য হিসেবে কয়েক দফায় দায়িত্ব পালন করেন।

মঞ্জুর উল আলম চৌধুরী

মঞ্জুর উল আলম চৌধুরী রংপুর জেলার মিঠাপুকুর থানার রানীপুকুর ইউনিয়নের তাজনগর গ্রামে ১৯৬৪ সালে জন্ম গ্রহণ করেন। রংপুর কেডেট কলেজ থেকে এসএসসি ও এইসএসসি। বুয়েট থেকে যন্ত্র প্রকৌশলে স্নাতক। সিভিল সার্ভিসে ১০ম বিসিএস এর মাধ্যমে। গানের সংখ্যা প্রায় ১০০। গান লেখা শুরু ২০০৫ সাল থেকে। ওপার বাংলার ইন্দোবাংলা কালচারাল সোসাইটি ২০১৭ সালে তাকে শ্রেষ্ঠ গীতিকারের পুরস্কার প্রদান করেন।

ফারুক হোসেন
ছড়াকার ও শিশু সাহিত্যিক। আশির দশক থেকে ফারুক হোসেনের ছড়া জনপ্রিয়তা লাভ করে। ছড়ার পাশাপাশি গল্প, ভ্রমণকাহিনী লিখে দক্ষতার পরিচয় দিয়েছেন ও সর্বমহলের প্রশংসা কুড়িয়েছেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
উপে