ভারতের বিপক্ষে বাংলাদেশের দুর্দান্ত জয়

ভারতের বিপক্ষে বাংলাদেশের দুর্দান্ত জয়

প্রকাশিত: 03-11-2019, সময়: 23:07 |
খবর > খেলা / লিড
Share This

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : দিল্লিতে অনুষ্ঠিত প্রথম টি-টোয়েন্টি ম্যাচে ভারতের বিপক্ষে আট ম্যাচ পর অবশেষে স্বস্তির জয় পেল বাংলাদেশ। ভারতের দেয়া ১৪৯ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে মুশফিকের অনবদ্য ফিফটিতে ৭ উইকেট হাতে রেখেই জয়ের বন্দরে পৌঁছে যায় সফরকারীরা।

রোববার (৩ নভেম্বর) রাত সাড়ে ৭টায় দিল্লির অরুণ জেটলি স্টেডিয়ামে টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথম ম্যাচে ভারতের বিপক্ষে টস জিতে ফিল্ডিং নেয় বাংলাদেশ। মাহমুদউল্লাহর এই সিদ্ধান্তে সুফল পায় সফরকারীরা। ৬ উইকেটে ১৪৮ রানে ভারতকে থামায় বোলাররা। জবাবে তিন বল হাতে রেখে তিন উইকেট হারিয়েই অভীষ্ট লক্ষ্যে পৌঁছে যায় বাংলাদেশ। ছক্কা মেরেই জয় তুলে মাঠ ছাড়েন ক্যাপ্টেন মাহমুদুল্লাহ। তবে মূল কাজটা করেন মি. ডিপেন্ডেবল মুশফিক। অপরাজিত থাকেন ৪৩ বলে ৬০ রানের ইনিংস খেলে।

শুরুতে লিটন দাসকে হারালেও দুই বাঁহাতি মোহাম্মদ নাঈম ও সৌম্য সরকারের ব্যাটে ৫০ পেরোই সফরকারীরা। পরে সৌম্য-মুশফিকের ব্যাটে জয়ের লক্ষ্যেই ছুটতে থাকে দল। এর আগে অভিষিক্ত ওপেনার মোহাম্মদ নাঈম শেখ আউট হয়ে ফেরেন দুই চার ও এক ছয়ে ২৬ রান করে।

রান তাড়ায় নেমে প্রথম ওভারেই উইকেট হারায় বাংলাদেশ। ইনিংসের পঞ্চম বলে দীপক চাহারের শিকার হন লিটন দাস। ৪ বলে ৭ রান করে কভার পয়েন্টে লোকেশ রাহুলের হাতে ধরা পড়েন এই ওপেনার।

ভারত ইনিংসের প্রথম ওভারেই রোহিত শর্মা ফিরেছেন ৫ বলে দুই চারে ৯ রান করে। শফিউলের বলে লেগ বিফোর হন তিনি। ফলে মাত্র ১০ রানেই প্রথম উইকেট হারায় ভারত। আর দলীয় ৩৬ রানে লোকেশ রাহুলকে (১৫) এবং ৭০ রানে মারকুটে শ্রেয়াস আয়ারকে (২২) ফিরিয়ে উল্লাসে মাতেন লেগস্পিনার আমিনুল ইসলাম বিপ্লব।

সপ্তম ওভারে বল হাতে এসে নিজের প্রথম ওভারেই লেগ স্পিনে বিভ্রান্ত করেন রাহুলকে। সরাসরি ক্যাচ তুলে দেন মিড উইকেটে দাঁড়ানো অধিনায়ক মাহমুদুল্লাহর হাতে। এর দুই ওভার পর আবারও দলকে উল্লাসে মাতান বিপ্লব। এবার শিকার করেন হাত খুলে খেলতে থাকা শ্রেয়াস আয়ারকে।

এরপর অভিষিক্ত শিভান দুবে ১ রানে আফিফের শিকার হন। তার আগে ৪১ রান করে রান আউটের শিকার হন শুরু থেকেই এক প্রান্ত আগলে ধরে খেলতে থাকা ওপেনার শিখর ধাওয়ান। ৪২ বলে তিন চার ও এক ছক্কায় দলের পক্ষে এদিনের সর্বোচ্চ ইনিংসটি খেলেন শিখর।

পরে ২৬ বলে তিন চারে ২৭ রান করা পান্টকে আউট করেন শফিউল। তবে শেষ দুই ওভারে তিন ছক্কায় ২৮ রান তুলে নিয়ে দলের স্কোরকে দেড়শ’র কাছে নিয়ে যান ক্রোনাল পান্ডিয়া (৮ বলে ১৫) ও ওয়াশিংটন সুন্দর (৫ বলে ১৪)। বাংলাদেশের হয়ে দুটি করে উইকেট লাভ করেন শফিউল ও বিপ্লব। আর একটি উইকেট পান আফিফ হোসেন।

Leave a comment

উপরে