পাকিস্তানে খেলা না হওয়ায় ক্রিকেটের অনেক ক্ষতি হয়েছে: অস্ট্রেলিয়ার কিংবদন্তি

পাকিস্তানে খেলা না হওয়ায় ক্রিকেটের অনেক ক্ষতি হয়েছে: অস্ট্রেলিয়ার কিংবদন্তি

প্রকাশিত: ০৪-১০-২০১৯, সময়: ১৯:৫২ |
খবর > খেলা
Share This

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : ১০ বছর পর করাচি স্টেডিয়ামে আন্তর্জাতিক ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয়। পাকিস্তান-শ্রীলংকার মধ্যকার ওয়ানডে ম্যাচটি দেখতে এভাবেই গ্যালারিতে ভিড় জমান সমর্থকরা। ছবি: টুইটার

অস্ট্রেলিয়ার কিংবদন্তি ক্রিকেটার ডেভিড বুন বলেছেন, পাকিস্তানের মাঠে গত ১০ বছর ধরে আন্তর্জাতিক ম্যাচ না হওয়ায়, ক্রিকেটেরই সবচেয়ে বেশি ক্ষতি হয়েছে। পাশাপাশি সমর্থকদের জন্যও সমস্যা হয়েছে। তারা ক্রিকেট ম্যাচ দেখা থেকে বঞ্চিত হয়েছেন।

চলতি পাকিস্তান-শ্রীলংকা সিরিজে ম্যাচ রেফারির দায়িত্ব পালন করে যাওয়া ৫৮ বছর বয়সী এই অস্ট্রেলিয়ান আরও বলেন, পাকিস্তনের মাঠে ক্রিকেট ফিরে আসাই ভালো।

অস্ট্রেলিয়ার হয়ে টেস্ট আর ওয়ানডে মিলে ২৮৮ ম্যাচে ২৬টি সেঞ্চুরির সাহায্যে ১৩ হাজার ৩৩৮ রান সংগ্রহ করেন ডেভিড বুন। এ কিংবদন্তি পেশাদার ক্রিকেট থেকে অবসরে আইসিসির ম্যাচ রেফারির দায়িত্ব পালন করে যাচ্ছেন।

পাকিস্তানের মাঠে চলতি সিরিজে ম্যাচ রেফারি দায়িত্ব পালন করে যাওয়া বুন একটি ইউটিউব ভিডিওতে বলেন, গত ১০ বছর ধরে পাকিস্তানের মাঠে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ম্যাচ না হওয়ায় অনেক দর্শকের জন্য সমস্যা হয়েছে। তারা ক্রিকেট দেখা থেকে বঞ্চিত হয়েছেন। পাকিস্তানের মাঠে খেলা হলে ক্রিকেটের জন্যই ভালো। এখানে অনেক ক্রিকেট ভক্ত আছে। তারা ক্রিকেটকে ভালোবাসে।

ডেভিড বুন আরও বলেন, পাকিস্তানের মাঠে খেলা হলে সব বয়সের সব শ্রেণিপেশার মানুষ গ্যালারিতে উস্থিত হয়ে ম্যাচ উপভোগ করেন। তাছাড়া পাকিস্তানে খেলা হলে এখানকরা তরুণ প্রজন্ম ক্রিকেটের প্রতি আরও বেশি মনোযোগী হবে। ভবিষ্যত প্রজন্ম ক্রিকেটকে ক্যারিয়ার হিসেবে বেছে নেবে।

প্রসঙ্গত, ২০০৯ সালে লাহোরে শ্রীলংকান ক্রিকেট দলকে বহনকারী বাসে সন্ত্রাসীরা হামলা চালায়। সেই হামলার পর থেকেই পাকিস্তান সফরে যেতে ভয় পাচ্ছে ক্রিকেট খেলুড়ে দলগুলো।

উপরে