তামিম ঠিকই রানে ফিরবে : মাশরাফি

তামিম ঠিকই রানে ফিরবে : মাশরাফি

প্রকাশিত: 11-06-2019, সময়: 14:43 |
Share This

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : তামিম ইকবাল সফল তো বাংলাদেশ সফল। তামিমের লম্বা ইনিংস মানে ম্যাচে বড় পুঁজি, অধিনায়ক মাশরাফির আত্মবিশ্বাস তুঙ্গে। গত কয়েক বছর ধরে এমনটিই হয়ে আসছে।

বাংলাদেশ দলের ড্যাশিং এ ওপেনার ২০১৫ সালের বিশ্বকাপের পর থেকে এই বিশ্বকাপ পর্যন্ত ৪৮ মাসে অসাধারণ সার্ভিস দিয়েছেন দলকে। এ সময়ে ৫২টি ওয়ানডে খেলে তামিমের উইলো থেকে এসেছে ২৫১১ রান।

দেশের আর কোনো ব্যাটসম্যান এই সময়ে ওয়ানডেতে তার কাছাকাছি রানও করতে পারেননি। বাংলাদেশি ব্যাটসম্যানদের মধ্যে শেষ চার বছরে সর্বাধিক রান করা তামিম ওই সময়ে বিশ্বের সফলতম ১৩ নম্বর ব্যাটসম্যানও।

এটিই শেষ নয়, এই চার বছরে তামিমের ব্যাট থেকে এসেছে ৭ শতক ও ১৮টি অর্ধশতক। ওয়ানডেতে তার গড় রান ৫৭.০৬।

সেই তামিমই এবার বিশ্বকাপে নিষ্প্রভ। প্রথম তিন ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকা, নিউজিল্যান্ড আর ইংল্যান্ডের সঙ্গে তামিম লম্বা কোনো ইনিংস খেলতে পারেননি। একটি হাফসেঞ্চুরিও নেই তার উইলোতে। তিন ম্যাচে তামিমের সংগ্রহ ১৬, ২৪ ও ১৯। সোজা কথায় বলা যায়, বৈশ্বিক আসরে এখনও নামের প্রতি সুবিচার করতে পারেননি বাংলাদেশ দলের এ ব্যাটিং নিউক্লিয়াস। এ নিয়ে হইচই। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমেও তোলপাড় চলছে।

এ নিয়ে কিছুটা চাপে আছেন তামিমও। ভালো খেলতে মুখিয়ে আছেন। প্র্যাকটিসে সবার আগে এসে নিজেকে ঝালিয়ে নিয়েছেন। সোমবার নেটে ৭৫ মিনিট টানা ব্যাটিং করেছেন নিজেকে ফিরে পাওয়ার দৃঢ় প্রত্যয়ে।

শ্রীলংকার বিপক্ষে আজকের ম্যাচে তামিমের কাছে প্রত্যাশা বেশি ভক্তদের। তাই রানে ফেরার তাগিদ অনুভব করছেন তামিম নিজেও। শ্রীলংকার বিপক্ষে ম্যাচেই রানে ফিরতে চান তিনি। ভক্তদের একটু ধৈর্য ধরার আহ্বান জানিয়েছেন তামিম।

এদিকে তামিম ইকবালের পাশে দাঁড়িয়েছেন অধিনায়ক মাশরাফি। তিনি তামিমের রানে ফেরা নিয়ে মোটেও চিন্তিত নয়। সোমবার ব্রিস্টলে ম্যাচপূর্ব সংবাদ সম্মেলন শেষে মাশরাফি বলেন, তামিম গত চার বছরে আমাদের সেরা ব্যাটিং পারফরমার। দলকে অসাধারণ সার্ভিস দিয়েছে। হয়তো কোনো কারণে এবার বিশ্বকাপে তিন ম্যাচে রান পায়নি। তাতে কি? কোনো আসরে এমন হতেই পারে। তামিম সাধ্যমতো চেষ্টা করছে রানে ফিরতে। সমস্যা কোথায়, তা খুঁজে বের করে সমাধানের চেষ্টাও করছে প্রাণপণ।

তামিমের ভাগ্য ফেভার করেনি জানিয়ে অধিনায়ক বলেন, তামিমের ভালো খেলে রান করা নির্ভর করবে ভাগ্যের ওপর। ভাগ্য সহায় থাকলে তার চেষ্টা সফল হবে। ঠিকই রানে ফিরবে। আর ভাগ্য ফেভার না করলে শতচেষ্টায়ও কাজ হবে না। তখন ২৩ গড় কেন, বাকি খেলাগুলোতে ২৩ রানও করতে পারে।

ওপরের মন্তব্যে পরিষ্কার, মাশরাফি মনে করেন- তামিমের ভালো খেলায় ভাগ্য একটা বড় ফ্যাক্টর। ভাগ্য সহায় থাকলে ঠিকই রানে ফিরবেন দেশসেরা ওপেনার।

উপরে