বাঘায় সুষ্ট পরিবেশে ভোট দিতে পেরে সন্তোষ প্রকাশ করেছেন নবীন-প্রবীণ ভোটার

বাঘায় সুষ্ট পরিবেশে ভোট দিতে পেরে সন্তোষ প্রকাশ করেছেন নবীন-প্রবীণ ভোটার

প্রকাশিত: 14-10-2019, সময়: 20:16 |
Share This

নিজস্ব প্রতিবেদক, বাঘা : নিরবিচ্ছিন্ন নিরাপত্তায় জীবনের প্রথম ভোট দিতে পেরে সন্তোষ প্রকাশ করেছেন মোজাহার হোসেন মহিলা ডিগ্রী কলেজের প্রথম বর্ষের ছাত্রী রিপা খাতুন। বাজুবাঘা ইউনিয়নের নওটিকা আরিফপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোট কেন্দ্রে বিকাল সাড়ে তিনটায় ভোট দিতে আসেন এই ভোটার। এই কেন্দ্রের প্রিজাইডিং অফিসার আনিসুর রহমান জানান ৩টা পর্যন্ত তার কেন্দ্রে ভোট পড়েছে ৮০%শতাংশ। বিকাল সাড়ে তিনটায় নওটিকা উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে মেয়ে আসমা শেখের কোলে চড়ে ভোট দিতে আসেন ১১৫ বছর বয়সের আরেকজন প্রবীণ ভোটার জমেলা বেওয়া।

সকাল পৌনে দশটায় তেপুকুরিয়া উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে ভোট দিতে আসেন আরেকজন নতুন ভোটার রাজশাহী সিটি কলেজের অনার্স দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী সুমাইয়া খাতুন। তিনি বলেন ভোটের সুষ্ঠু পরিবেশ দেখে তিনি অত্যন্ত খুশি। এই কেন্দ্রের প্রিজাইডিং অফিসার সহকারি অধ্যাপক বিমলেন্দু মিশ্র বলেন, ১১৯৭ ভোটারের মধ্যে ১০ শতাংশ ভোট কাস্ট হয়েছে । বিকেল সাড়ে ৪টায় পর্যন্ত দাদপুর গড়গড়ি উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রের প্রিজাইডিং অফিসার তরিকুল ইসলাম জানান তার কেন্দ্রে ভোট কাষ্ট হয়েছে ৮৫ শতাংশ।

উপজেলার চারটি ইউনিয়নের বেশ কয়েকটি কেন্দ্র ঘুরে করে দেখা যায়, ভোটারদের সরব উপস্থিতি। এরমধ্যে দেখা গেছে পুরুষ ভোটারের চাইতে নারী ভোটারদের উপস্থিতি বেশি। অবাধ সুষ্ঠু নিরপেক্ষ নির্বাচনের লক্ষ্যে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর লোকজন ছিল অত্যন্ত তৎপর।

সোমবার উপজেলার ৪টি ইউনিয়ন বাজুবাঘা, গড়গড়ি, পাকুৃড়িয়া ও মনিগ্রাম ইউনিয়ন পরিষদে সকাল ৯টা পর্যন্ত বিকেল ৫পর্যন্ত বিরতিহীন ভাবে ভোট গ্রহন করা হয়। কোথাও কোন অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি। সতেরো বছর পর অনুণ্ঠিতব্য নির্বাচনে ভোটারদের মধ্যে ছিল উৎসবের আমেজ।

পাকুড়িয়া ইউনিয়নের আ’লীগ দলীয় চেয়ারম্যান প্রার্থী মেরাজুল সরকার মেরাজ বলেন, সরকারের স্বদিচ্ছায় সুষ্ট নির্বাচন হয়েছে। বাজুবাঘা ইউনিয়নের বিএনপি দলীয় চেয়ারম্যান প্রার্থী ফিরোজ আহমেদ রনজু বলেন,নির্বাচন নিরপেক্ষ হয়েছে। তবে ভোটাররা কোন কোন সময় কেন্দ্রে আসতে বাঁধা প্রাপ্ত হলেও আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর তৎপরতায় সে শঙ্কা কেটে গেছে।

নির্বাচন অফিসার মুজিবুল আলম জানান, চার ইউনিয়নে ভোটার সংখ্যা ছিল- বাজুবাঘা ইউনিয়নে ১০হাজার ৭৩৮, গড়গড়ি ইউনিয়নে ১২ হাজার ২১২, পাকুড়িয়া ইউনিয়নে ১৫ হাজার ৩৬৬ ও মনিগ্রাম ইউনিয়নে ২৩ হাজার ৪০৩জন।

উপরে