তানোরে দুই নারী আদিবাসীর বাড়ি ভাংচুর-লুটপাট, আদালতে মামলা

তানোরে দুই নারী আদিবাসীর বাড়ি ভাংচুর-লুটপাট, আদালতে মামলা

প্রকাশিত: ১৮-০৯-২০১৯, সময়: ০১:২৩ |
Share This

নিজস্ব প্রতিবেদক, তানোর : তানোরে আদিবাসী ২নারীর জায়গা দখলের জন্য বাড়ি-ঘর ভাংচুর ও গাছ কেটে নেয়ার ঘটনায় আদালতে মামলা দায়ের করা হয়েছে। গত রোববার তানোর রাজশাহীর ৬ এর আমলী আদালতে কোয়েল হাট আদিবাসী পাড়ার রুপাইয়ের পুত্র সরকার মুর্মুসহ ১১জনকে আসামী করে মামলাটি দায়ের করেন তানোর উপজেলার কোয়েল আদিবাসি পাড়ার মৃত মন্ডল হেমব্রমের পুত্র আমেনা হেমব্রমের স্বামী পঞ্চম হেমব্রম। মামলা দায়েরের পর প্রভাবশালী সরকার মুর্মুসহ তার দলবল বাদিসহ তার পরিবারকে বিভিন্ন প্রকার ভয়ভীতি ও হুমকি প্রদান শুরু করেছেন।

মামলা বিবরণে উল্ল্যেখ করা হয়েছে, তানোর উপজেলার কোয়েল হাট বইরাগি আদিবাসি পাড়ার কোয়েল হাট মৌজায় আরএস ক্ষতিয়ান নং ৪৯৪, দাগ নং ৪২৭, জে-এল নং ৯০, ১৪শতাংশ জমি ক্ষতিয়ান মুলে জমির মালিক রাবন মাঝি। রাবন মাঝির ওয়ারিশ সুত্রে উক্ত সম্পত্তি মালিক রাবন মাঝির নাতনি সনতি মুর্মু ও আমেনা মুর্মু। উক্ত সম্পত্তির উপর ঘর-বাড়ি নির্মান করে দীর্ঘদিন ধরে সনতি মুর্মু ও আমেনা মুর্মু তার পরিবার নিয়ে বসবাস করে আসছিলেন।

গত বুধবার সকালে হঠাৎ একই গ্রামের মৃত রুপাই মুর্মুর পুত্র সরকার মুর্মু লাঠি-সোটা, হাসুয়া বল্লম ও ধারালো অস্ত্রসহ ৩০/৪০জন ভাড়াটিয়াদেরকে সাথে নিয়ে সনতি মুর্মু ও আমেনা মুর্মুর বাড়িতে হামলা চালিয়ে বাড়ি-ঘর ভাংচুর ও লুটপাট করে এবং বাড়ির সামনের বেশ কয়েকটি ফলজগাছ কেটে নেয়। ওই সময় অস্ত্রের মুখে কেউ বাধা দিতে পারেননি বলে জানান গ্রামবাসিসহ আদিবাসি পল্লীর আদিবাসিরা।

অপরদিকে, হামলাকারীদের অব্যাহত হুমকির মুখে দরিদ্র আদিবাসি সনতি মুর্মু ও আমেনা মুর্মু কোথাও অভিযোগ করার সাহস পাচ্ছিলেন না।

এ ব্যাপারে যোগাযোগ করা হলে তানোর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) খাইরুল ইসলাম বলেন, এঘটনার বিষয়ে থানায় কেউ আসেননি বা আদালতে দায়ের করা মামলাটি এখনো আসেনি। থানায় মামলাটি আসলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

উপরে