রাজশাহীতে ছেলেধরা সন্দেহে দুই যুবককে গণপিটুনি

রাজশাহীতে ছেলেধরা সন্দেহে দুই যুবককে গণপিটুনি

প্রকাশিত: ২০-০৭-২০১৯, সময়: ২৩:১০ |
Share This

নিজস্ব প্রতিবেদক, তানোর : রাজশাহীর তানোরে ছেলেধরা সন্দেহে দুই যুবককে গণপিটুনি দিয়ে প্রশাসনের হাতে তুলে দিয়েছে গ্রামবাসী। এতে তারা আহত হলে তাদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়।

শনিবার বিকেলে কমলা ইউনিয়নের বহড়া ও কামারগাঁ ইউনিয়নের কচুয়া গ্রামে এ পৃথক দুইটি ঘটনা ঘটে। দুই যুবকের মধ্যে একজনের নাম মনোয়ারুল বলে জানা গেলেও আরেকজনের পরিচয় পাওয়া যায়নি।

তানোর থানা ওসি খাইরুল ইসলাম বলেন, কলমা ইউনিয়নের বহড়া থেকে ছেলেধরা বা গলাকাটা সন্দেহে এক যুবককে (১৫) গণপিটুনি দিয়ে র‌্যাব-৫ এর হাতে তুলে দিয়েছে গ্রামবাসী। শনিবার বিকালে র‌্যাবের একটি দল যুবকটিকে ঘটনাস্থল উদ্ধার করে তানোর থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করে।

অপরদিকে, দুপুরে গলাকাটা সন্দেহ উপজেলার কামারগাঁ ইউনিয়নের কচুয়া গ্রাম থেকে মনোয়ারুল নামে আরেক যুবককে গণপিটুনি দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করে গ্রামবাসী। তবে পরে জানা যায় সে ছিছকে চোর। তাকে চুরির মামলা দিয়ে কারাগারে পাঠানো হয়।

রাত সাড়ে ১০টার দিকে ওসি জানান, অজ্ঞাত ওই যুবকের পরিচয় এখনো নিশ্চিত হওয়া যায়নি। ওই যুবক পুলিশের কাছে কোন কিছুই বলছে না। নিজের নাম একেক বার একেক নাম বলছে। ধারণা করা হচ্ছে এই যুবক ভারসাম্যহীন। সন্দেহভাজন হিসেবে তাকে রোববার সকালে আদালতে পাঠানো হবে।

উপরে