পুকুর টেন্ডার নিতে ভূয়া সেক্রেটারী সাজলেন শিক্ষক

পুকুর টেন্ডার নিতে ভূয়া সেক্রেটারী সাজলেন শিক্ষক

প্রকাশিত: ০৬-১২-২০১৮, সময়: ১৫:২৮ |
Share This

নিজস্ব প্রতিবেদক, গোদাগাড়ী : এবার সরকারী খাস পুকুর পেতে সমিতির ভূয়া সাধারণ সম্পাদক সেজে দরপত্র আহবান করলেন গোদাগাড়ীর আ.ফ.জি পাইলট উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ের শিক্ষক শামসুজ্জোহা বাবু। একজন শিক্ষকের এমন কান্ডে গোদাগাড়ী সদরে চলছে সমালোচনার ঝড়। খাসপুকুর টেন্ডারে অংশ গ্রহণ করে নিজের দূর্বলতা থাকলেও লিজে অংশ গ্রহণকারী অন্যদেরকে ভূয়া আখ্যায়িত করে হুংকার দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। গত কয়েকদিনের এক তথ্য অনুসন্ধানে এসব বেরিয়ে এসেছে।

জানাযায়, গত ১৫ নভেম্বর গোদাগাড়ী উপজেলা নির্বাহী অফিসার ১৪২৫-২৭ তিন বছরের জন্য তৃতীয় দফায় সরকারী খাস পুকুর লীজ প্রদানের জন্য দরপত্র আহবান করে। এসব সরকারী পুুকুর লীজ পেতে মৎসজীবি ও মৎস্য চাষী সমিতির অংশ গ্রহণে সর্বোচ্চ দরদাতাকে পুকুর লীজ প্রদান করা হয়। গত ২৬ নভেম্বর পুকুর লীজের ফলাফল প্রদান করা হয়। এতে উপজেলার সেখপুর মোজার ৯ নং দাগে ২.৩০ পরিমাণের পুকুরটি ১ লাখ ৩০ হাজার বাৎসরিক দরে প্রথম দরদাতা হিসেবে পুকুরটি পাই। দ্বিতীয় দরদাতা ছিলেন সূর্যসেনা মৎস্যজীবি সমিতি ১ লাখ ২০ হাজার টাকায়।

প্রথম দরদাতার সকল কিছু প্রক্রিয়া ঠিক থাকলেও সূর্যসেনা মৎসজীবির সমিতি দ্বিতীয় দরদাতা হওয়ায় সেই সমিতির আসল সভাপতি মোঃ শামিম ও সাধারণ সম্পাদক আব্দুল বারী থাকলেও পুকুর টেন্ডারে অংশ গ্রহণ করতে গোদাগাড়ী আ.ফ.জি বালিকা পাইলট উচ্চ বিদ্যালেয়ে কারিগরির শিক্ষক শামসুজ্জোহা বাবু নিজেই। সেই সমিতিরি সাধারণ সম্পাদক সেজে সিডিউলে নিজের ছবি ব্যবহার করেছে তবে স্বাক্ষর টি রয়েছে সাধারণ সম্পাদক হিসেবে আশরাফুলের। সূর্যসেনা মৎস্যজীবি সমবায় সমিতির দ্বিতীয় দরদাতা হওয়ার সুবাদে শিক্ষক সামসুজ্জোহা বাবু প্রথম দরদাতা সমিতি অবিলব্দা মৎস্যচাষী সমবায় সমিতি প্রথম দরদাতা স্বচ্ছ প্রক্রীয়াই হয়নি বলে অবিলব্দা মৎস্যচাষী সমিতির প্রতিনিধি টিয়াকে হুমকি দেয় ।

পুকুর কিভাবে নিতে হয় আমি দেখব। পুকুর লীজ কমিটি আমাকে হাতে ধরিয়ে দিবে বলে হুংকার দেয়। এসব অভিযোগ উপজেলা নির্বাহী অফিসারকেও দেয় ওই শিক্ষক। এমন কি ওই শিক্ষক সামসুজ্জোহা বাবু পুকুর পেতে মরিয়া হয়ে থাকায় র‌্যাব-৫ এর এক সদস্যকে দিয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসের সার্টিফিকেট সহকারী মোঃ মিজান কে ফোন দেয় যাতে বিষয়টি দেখে।

অবিলব্দা মৎস্যচাষী সমিতির প্রতিনিধি টিয়া তার হুমকিতে গোদাগাড়ী উপজেলা নির্বাহী অফিসের ওফিস সুপার ওয়াহেদের নিকট গিয়ে জানতে চাই দ্বিতীয় দরদাতা সূর্যসেনা মৎসজীবি সমিতির আবেদন কারী কে জানতে এবং পুকুর সিডিউলে কার নাম সংযুক্ত আছে তা দেখতে চাই। অফিস সুপার ওয়াহেদ আলী কাগজ পত্রাদি দেখালে দেখা যায় যে সূর্যসেনা মৎস্যজীবি সমিতির সাধারণ সম্পাদক হিসেনে শিক্ষক শামসুজ্জোহা বাবু নিজের ছবি ব্যবহার করেছেন এবং আবেদনীকরী হিসেবে আশরাফুল নামে স্বাক্ষর রয়েছে। জালিয়াতির বিষয়টি অফিস সুপার ওয়াহেদ আলী বুঝতে পেরে খবর প্রকাশ করতেও নিষেধ করে।

এই বিষয়ে শিক্ষক সামসুজ্জোহা বাবুর কাছে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, আমি সূর্যসেনা মৎস্যজীবি সমিতিটি কিনে পুকুর টেন্ডারে অংশ গ্রহণ করেছি।

এর আগে গত বছর জেএসসি পরীক্ষার ডিউটির সময় মোবাইল ফোন নিষিদ্ধ থাকলেও সে এ্যান্ডুয়েড ফোন ও একটি সাধারণ ফোন পরীক্ষা হলে নিয়ে প্রবেশ করে ডিউটি করে। ডিউটি অবস্থায় অন্য একজনকে ডিউটির দায়িত্ব দিয়ে আসছি বলে পরীক্ষার হল থেকে উধান হয়ে যায়। পরীক্ষা শেষ হলেও আর ফিরে আসেনি। সেই সময়ে ওই শিক্ষক পরীক্ষার ডিউটি হতে বাদও পরে ছিলো। সেই স্কুলের প্রধান শিক্ষক উপজেলা শিক্ষা অফিসারকে কারণ দর্শানো নোটিশও করে ছিলো।

এই বিষয়ে গোদাগাড়ী উপজেলা নির্বাহী অফিসার শিমুল আকতারের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, সেই শামসুজ্জোহা বাবুই তো উল্টো অভিযোগ করে তার এই কান্ড আমার জানা ছিলো না। বিষয়টি আমি দেখবে বলে মন্তব্য করেন।

আরও খবর

  • রাজশাহী নগরের ছেলেধরা সন্দেহে একজনকে গণপিটুনি
  • বাগমারায় সরকারী জমিতে অবৈধ পাকাঘর নির্মাণের অভিযোগ
  • তানোরে ইয়াবাসহ ৩ ব্যাবসায়ী গ্রেপ্তার
  • আকাশ, স্থল ও নৌ পথে রাজশাহী-কলকাতা যুক্ত শীঘ্রই
  • সোনালী আঁশে ব্যস্ত চাষিরা
  • ভারতীয় হাইকমিশনারের পুঠিয়া রাজবাড়ি পরিদর্শন
  • রাজশাহীতে মাদকদ্রব্য উদ্ধারসহ আটক ৬৭
  • অগ্রণী বিদ্যালয় ও মহাবিদ্যালয়ে কৃতি শিক্ষার্থী সংবর্ধনা ও নবীন বরণ
  • গোদাগাড়ীতে মাঠ সহকারিদের সাইকেল বিতরণ
  • বরেন্দ্র অঞ্চলে খরার কবলে বোরো আমন
  • রাজশাহীতে ছেলেধরা সন্দেহে ৫ এনজিও কর্মীকে গণধোলাই
  • পুঠিয়ায় নিরাপদ ও বিচক্ষণ ব্যবহার বিষয়ে প্রশিক্ষণ কর্মশালা
  • বাগমারায় জমে উঠেছে দলিল লেখক সমিতির নির্বাচনী প্রচারণা
  • গোদাগাড়ীতে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে পরিচালকের ঝটিকা অভিযান
  • রাজশাহীতে যুবককে অপহরণ করে মুক্তিপণ দাবি, গ্রেপ্তার ২



  • উপরে