জনগণ আর ভূতের হাতে ক্ষমতা তুলে দেবে না : বীরেন শিকদার

জনগণ আর ভূতের হাতে ক্ষমতা তুলে দেবে না : বীরেন শিকদার

প্রকাশিত: ১১-১০-২০১৮, সময়: ১৮:২০ |
Share This

নিজস্ব প্রতিবেদক, বাগমারা : বাংলাদেশ সরকারের যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী বীরেন শিকদার বলেছেন, দেশের জনগণ বুঝতে শিখেছে। তারা আজ আর অন্ধ নয়। দেশবাসী জানেন কার মাধ্যমে দেশে উন্নয়নের জোয়ার বইছে। দেশ আজ সমৃদ্ধ। দেশে আর কোন মানুষকে অনাহারে ধাকতে হয় না। বাংলাদেশ বর্তমানে বিশ্ব দরবারে উন্নয়নের মডেল হিসেবে পরিচিতি লাভ করেছে। বৃহস্পতিবার সকালে উপজেলার তাহেরপুরে রাজা কংস নারায়ন রায় বাহাদুর এর শ্রী শ্রী দূর্গা মাতা মন্দিরে অষ্টধাতু দিয়ে ব্রোঞ্জ এর তৈরি প্রতীমা স্থাপন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি।

প্রধান অতিথি আরো বলেছেন, দেশ যখন এগিয়ে যাচ্ছিল সেই মূহুর্তে দেশ টাকে পিছিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করা হয়েছিল। অতীতে আ’লীগ সরকার দেশের আপামর জনগোষ্ঠীর স্বাস্থ্য সেবায় কমিউিনিটি ক্লিনিক চালু করে স্বাস্থ্য খাতে আমুল পরিবর্তন বয়ে আনে। বিএনপি সরকার ক্ষমতায় আসার পর সেই সকল কমিউিনিটি ক্লিনিক বন্ধ করে দেয়। দেশের মানুষকে সুচিকিৎসা থেকে বঞ্চিত করাই ছিল তাদের উদ্দেশ্য। তিনি আরো বলেছেন ভূত যেভাবে পিছন দিকে হাটে ঠিক সেই ভাবে বিএনপি সরকার দেশ টাকে পিছন দিয়ে নিয়ে গেছে।

বর্তমান সরকার ক্ষমতায় আসার পর মধ্যম আয়ের দেশকে উন্নয়নশীল দেশে রুপান্তরিত করেছেন। বেড়েছে মাথাপিছু আয়। প্রধান অতিথি আরো বলেছেন উন্নত বিশ্বের দেশ গুলো আগে যেভাবে বাংলাদেশকে দেখতো বর্তমানে ঘটেছে তার উল্টো। উন্নত বিশ্বের দেশ গুলো আজ বাংলাদেশকে অনুসরণ করছে। জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্নের সোনার বাংলা বিনির্মানে কাজ করে চলেছে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তাঁর উন্নয়নের জাদুতে দেশ দুর্বার গতিতে সারা বিশ্বে মাথা উচু করে দাঁড়িয়েছে। দেশের চলমান উন্নয়ন ধারা অব্যাহত রাখতে একাদশ জাতীয় সংসদগ নির্বাচনে আবারও নৌকা প্রতীকে ভোট দেয়ার আহ্বান জানান তিনি।

অনুষ্ঠানের প্রধান পৃষ্ঠপোষক বাগমারা আসনের সংসদ সদস্য ইঞ্জিনিয়ার এনামুল হক বলেছেন, আ’লীগ সরকার যতবার ক্ষমতায় এসেছে ততোবার দেশবাসীর কল্যাণে কাজ করেছেন। আ’লীগ মানেই সকলের সমঅধিকার। আ’লীগে সরকার ক্ষমতায় আসার পর বাগমারাবাসীর জন্য শান্তি প্রতিষ্ঠা করেছেন। এক সময়ের রক্তাক্ত জনপদ বর্তমান সরকারের দুরদর্শী ভূমিকার কারণে শান্তির জনপদে পরিনত হয়েছে।

তিনি আরো বলেন, বর্তমান সরকার ক্ষমতায় আসার পর থেকে বাগমারা উপজেলার সকল স্থানে যে উন্নয়ন সাধিত হয়েছে তা বলার অপেক্ষা রাখে না। বাগমারার ইতিহাসে এ রকম উন্নয়ন আগে আর কখনো সংগঠিত হয়নি। সাংসদ এনামুল হক আরো বলেছেন, ভারত উপমহাদেশের হিন্দু সনাতন ধর্মাবলম্বীদের বৃহৎ শারদীয় দুর্গোৎসবের উৎপত্তি হয় তাহেরপুরে। তাহেরপুরের তৎকালীন রাজা কংস নারায়ণ রায় বাহাদুর শারদীয় দুর্গা পূজার প্রচলন করেন। তখন থেকে সনাতন হিন্দু ধর্মাবলম্বীরা দুর্গা পূজা শুরু করে। প্রায় সাড়ে পাঁচ শত বছর আগে রাজা কংস নারায়ণ রায় বাহাদুর রাজবাড়ীতে অবস্থিত শ্রী শ্রী দুর্গা মাতা মন্দির থেকে শারদীয় দুর্গা পূজা শুরু করেন। রাজা কংস নারায়ণ রায় বাহাদুর শারদীয় দূর্গা পূজার প্রচলন করেছেন বলেই তার সেই ইতিহাসকে স্মরণীয় করে রাখতে রাজার সেই মন্দিরে অষ্টধাতু দিয়ে ব্রোঞ্জ এর তৈরি প্রতীমা স্থাপন করা হয়েছে। তিনি আরো বলেছেন রাজা কংস নারায়নের এই মন্দিরটি আন্তর্জাতিক মানের একটা পর্যটন কেন্দ্রে পরিনত করা হবে। শুধু দেশ নয় সারা পৃথিবীর লোকজন এটা পরিদর্শন করতে আসবে বলেও জানান তিনি।

তাহেরপুরের রাজবাড়ীতে অবস্থিত শ্রী শ্রী দূর্গা মাতা মন্দির পরিচালনা কমিটির সভাপতি নিশীথ কুমার সাহার সভাপতিত্বে এবং সোনাডাঙ্গা ইউনিয়ন আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক কাঞ্চন রায় চৌধুরীর পরিচালনায় উক্ত অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদের সাধারণ সস্পাদক নির্মল চ্যাটার্জী, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক নজরুল ইসলাম, হিন্দু ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্টের ট্রাস্টি, কেন্দ্রীয় পূজা উৎযাপন পরিষদের সহ-সভাপতি ও জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি অনিল কুমার সরকার, নাটোর পৌর সভার মেয়র ঊমা চৌধুরী, জেলা আ’লীগের কৃষি বিষয়ক সম্পাদক অধ্যক্ষ কুমার প্রতীক দাশ রানা, ভবানীগঞ্জ পৌরসভার মেয়র আব্দুল মালেক মন্ডল, উপজেলা আ’লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক গোলাম সারওয়ার আবুল, সাংগঠনিক সম্পাদক আবুল হোসেন মাস্টার, উপজেলা মহিলা লীগের সভাপতি মরিয়ম বেগম প্রমুখ।

এ সময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জাকিউল ইসলাম, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সুমন দেব, উপজেলা আ’লীগের সহসভাপতি মতিউর রহমান টুকু, আফতাব উদ্দীন আবুল, দপ্তর সম্পাদক ইসমাইল হোসেন বেঙ্গল, সহ-দপ্তর সম্পাদক নুরুল ইসলাম, বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক নাসির উদ্দীন, চেয়ারম্যান আজাহারুল হক, সরদার জান মোহম্মাদ, সদস্য হাচেন আলী, হাতেম আলী, আকবর আলী, লোকমান আালী, আব্দুর রহমান, আব্দুল বারী, বকুল খরাদী, তাহেরপুর পৌর আ’লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহাবুর রহমান বিপ্লব, প্রভাষক কাওসার আলী, আ’লীগ নেতা আমজাদ হোসেন মৃধা, মাহাবুবুল হক শাহী, গুলবর রহমান, আকবর আলী, আব্দুর রাজ্জাক মোল্লা, উপজেলা কৃষকলীগের সভাপতি এমদাদুল হক, সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান আসাদ, মহিলা লীগের সাধারণ সম্পাদক কহিনুর বেগম, তাহেরপুর পৌর যুবলীগের সভাপতি মাসুদ রানা, সাধারণ সম্পাদক সুমন শাহ, উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি আাব্দুল মালেক নয়ন, সাধারণ সম্পাদক জহুরুল ইসলাম, জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সভাপতি বীরেন্দনাথ সরকার, সাধারণ অম্বর কুমার সরকার, হিন্দু, বৌদ্ধ, ঐক্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক অসিত কুমার ঘোষ, ছাত্রলীগ নেতা উজ্জল হোসেন, আশিকুর রহমান সজল, আতাউর রহমান, মিলন প্রমুখ।

এক টনের বেশি ওজনের এই প্রতীমাটি তৈরি করতে ২২ লাখেরও বেশি অর্থ খরচ হয়েছে বলে জানাগেছে। উৎপত্তি লগ্নে এক মাস ব্যাপি শারদীয় দূর্গা পূজা করলেও বর্তমানে পাঁচদিন ব্যাপি উৎযাপন করা হচ্ছে দূর্গা পূজা। আগামী ১৫ অক্টোবর শুরু হচ্ছে শারদীয় দূর্গা পূজা। আগামী ১৯ অক্টোবর দশমীর মধ্যে দিয়ে শেষ হবে হিন্দু সনাতন ধর্মাবলম্বীদের সর্ব বৃহৎ শারদীয় দূর্গোৎসব।

আরও খবর

  • চাটমোহরে সড়ক দুর্ঘটনায় দম্পত্তি নিহত
  • ‘জঙ্গি মদদদাতারা প্রার্থী হওয়ায় নিরাপত্তা হুমকির মুখে’
  • ‘শিক্ষার উন্নয়নে সব সময় কাজ করে যাব’
  • নাটোর-৩ আসনে বিএনপি ছাড়লেন অর্ধশত নেতাকর্মী
  • প্রকাশ্যে ক্ষমা চাইতে কামালকে ২৪ ঘণ্টার আল্টিমেটাম
  • ক্ষমা চাইলেন ড. কামাল
  • পুঠিয়ায় ট্রাকের নিচে পৃষ্ট হয়ে দুই নারীর মৃত্যু
  • রাষ্ট্রপতির সাক্ষাৎ চেয়ে ঐক্যফ্রন্টের চিঠি
  • গোদাগাড়ীতে বিএনপি নেতাকে আটকের পর ছেড়ে দিলো পুলিশ
  • ড. কামাল হোসেনের বিরুদ্ধে জিডি
  • পাকিস্তানের নিরাপত্তা বাহিনীর ছয় সদস্য নিহত
  • অচেনা ট্রেনে অচিন দেশে আমজাদ হোসেন
  • ‘সাম্প্রদায়িক শক্তির নেতৃত্ব দিচ্ছে বিএনপি’
  • জাতীয় পার্টির ইশতেহার ঘোষণা
  • সিরিজ জয় টাইগারদের


  • উপরে