বাগমারায় একই রাতে ৬ দোকানের ১৩ লাখ টাকার মালামাল লুট

বাগমারায় একই রাতে ৬ দোকানের ১৩ লাখ টাকার মালামাল লুট

প্রকাশিত: ০৩-১০-২০১৭, সময়: ১৮:০২ |
Share This

নিজস্ব প্রতিবেদক, বাগমারা : রাজশাহীর বাগমারায় দুইটি জুয়েলারী দোকানসহ ৬ টি দোকানে দুধর্ষ চুরি সংগঠিত হয়েছে। সংবদ্ধ চোরের দল দোকান গুলো থেকে নগদ অর্থ, স্বর্ণলংকার ও অন্যান্য জিনিসপত্রসহ প্রায় ১৩ লাক টাকার মালামাল লুট করেছে বলে দোকান মালিকেরা জানিয়েছেন। ওই ঘটনায় দোকানের মালিকেরা বাদী হয়ে বাগমারা থানায় আলাদা আলাদা ভাবে লিখিত এজাহার দায়ের করেছেন। পুলিশ ওই ঘটনায় এখনো কাউকে গ্রেপ্তার বা চুরি যাওয়া মালামাল উদ্ধার করতে পারেনি।

থানায় লিখিত অভিযোগ ও দোকান মালিক আশরাফুল ইসলাম, চাঁন মোহাম্মাদসহ একাধিক দোকান্দারেরা জানান, প্রতি দিনের মত সোমবার রাত সাড়ে ১০ টার দিকে দেউলা বাস ষ্ট্যান্ড ও ব্রীজ সংলগ্ন স্থান গুলোতে দোকান্দারী শেষে দোকান বন্ধ করে বাড়ীতে চলে যায়। মঙ্গলবার ভোরে লোক মারফত জানতে পারেন, তাদের দোকানে চুরি হয়েছে। খবর পাওয়ার সাথে সাথে তারা বাড়ী থেকে দোকানে আসেন এবং দোকান গুলোতে চুরির দৃস্য দেখতে পান।

মুনি জুয়েলার্সের মালিক আনিছুর রহমান জানান, চোরের দল তার দোকানের দরজার সাটারিং ভেঙ্গে দোকানে প্রবেশ করেন এবং নগদ অর্থ ও স্বর্নের জিনিসসহ প্রায় দুই লাখ টাকার মালামাল লুট করে নিয়ে যায়। এছাড়াও একই কথা বলেন, রিমা জুয়েলার্স থেকে নগদ টাকা ও স্বর্ণলংকারসহ প্রায় তিন লাখ, মিন্টু টেলিকম থেকে দেড় লক্ষাধিক, জারিপ টেলিকম থেকে তিন লক্ষাধিক, চাঁন মোদিখানার দোকান থেকে দেড় লাখ ও হারবাল ঔষুধালয় থেকে দুই লক্ষাধিক টাকাসহ মালামাল রুট করে নিয়ে গেছে চোরের দল। দোকান্দারগন অবিলম্বে অভিযান চালিয়ে ওই সকল চোরদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা ও লুটকৃত মালামাল গুলো উদ্ধারের দাবী জানিয়েছেন।

এলাকার সচেতন মানুষ জানান, একই রাতে বাস ষ্ট্যান্ড এলাকার মত গুরুত্বপূর্ন স্থানে কিভাবে ৬ টি দোকানে দুধর্ষ চুরি সংগঠিত হয়েছে? তারা অবিলম্বে দোকান গুলোর চুরি যাওয়া মালামাল উদ্ধার ও চোরদের গ্রেপ্তারের দাবী জানিয়েছেন।

এ ব্যাপারে যোগাযোগ করা হলে বাগমারা থানার ওসি নাছিম আহম্মেদ জানান, মালামাল চুরি বিষয়ে থানায় একাধিক লিখিত অভিযোগ হয়েছে। অভিযোগ গুলো মামলার প্রক্রিয়াধিন রয়েছে। মামলার পর পরই পুলিশ চোরদের গ্রেপ্তার ও চোরায় মালামাল উদ্ধারে মাঠে নামবে বলে তিনি জানিয়েছেন।

উপরে