স্বেচ্ছাসেবক লীগের সম্পাদক কে এই আফজালুর বাবু?

স্বেচ্ছাসেবক লীগের সম্পাদক কে এই আফজালুর বাবু?

প্রকাশিত: ১৭-১১-২০১৯, সময়: ১২:০৭ |
Share This

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : সাত বছর পর নতুন নেতৃত্ব পেল আওয়ামী স্বেচ্ছাসেবক লীগ। বহুল প্রতীক্ষিত এই সম্মেলনের মধ্য দিয়ে আগামী তিন বছরের জন্য সভাপতি হয়েছেন নির্মল রঞ্জন গুহ, আর সাধারণ সম্পাদক আফজালুর রহমান বাবু। এই দুজনকেই পূর্ণাঙ্গ কমিটি করতে ভার দিয়েছে আওয়ামী লীগ।

শনিবার বিকালে রাজধানীর ইঞ্জিনিয়ার্স ইন্সটিটিউশন মিলনায়তনে কাউন্সিল অধিবেশনে স্বেচ্ছাসেবক লীগের দুই শীর্ষ নেতার নাম ঘোষণা করেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

এর আগে সকালে ঐতিহাসিক সোহরাওরার্দী উদ্যানে সম্মেলনের উদ্বোধন করেন আওয়ামী লীগ সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। পরে দ্বিতীয় অধিবেশনে নতুন নেতৃত্ব নির্বাচন করা হয়। সেখানেই কেন্দ্রের পাশাপাশি ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণ স্বেচ্ছাসেবক লীগের নতুন নেতার নামও ঘোষণা করেন ওবায়দুল কাদের।

কেন্দ্রীয় স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি পদে ৬ জন ও সাধারণ সম্পাদক পদে ১২ জনের নাম প্রস্তাব করা হয়। এই প্রার্থীদের মধ্যে সমঝোতা না হওয়ায় নেতৃত্ব বেছে নেয়ার ভার দেয়া হয় আওয়ামী লীগ সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে। তিনি কেন্দ্রীয় সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক বেছে নেন।

নতুন সাধারণ সম্পাদক হওয়া আফজালুর রহমান বাবু স্বেচ্ছাসেবক লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সহসভাপতি পদে ছিলেন। তিনি স্কুলজীবন থেকেই ছাত্রলীগের রাজনীতির সঙ্গে জড়িত ছিলেন। তিনি গভর্মেন্ট ল্যাবরেটরি স্কুল ছাত্রলীগের সভাপতি ও ঢাকা কলেজ ছাত্রলীগের সহসভাপতির দায়িত্ব পালন করেছেন।

কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের প্রচার সম্পাদক পদেও ছিলেন। সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হওয়ার পর আফজালুর রহমান বাবু বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর দেয়া দায়িত্ব সততা ও নিষ্ঠার সঙ্গে পালন করব।

ক্যাসিনোকাণ্ডে নাম আসা আগের কমিটির সভাপতি মোল্লা মোহাম্মদ আবু কায়সারের পাশাপাশি সাধারণ সম্পাদক পঙ্কজ দেবনাথও বাদ পড়েছেন স্বেচ্ছাসেবক লীগের কর্মকাণ্ড থেকে। প্রায় সাত বছর তারা সংগঠনটির নেতৃত্ব দেন। পরে সম্মেলন প্রস্তুতি কমিটির আহ্বায়ক করা হয় নির্মল গুহকে, গতকালের সম্মেলনে তাকেই সভাপতি করা হয়।

১৯৯৭ সালে তৎকালীন সংসদ সদস্য মকবুল হোসেনকে আহ্বায়ক করে স্বেচ্ছাসেবক লীগের প্রথম কমিটি হয়। পরে ২০০২ সালে প্রথম কাউন্সিলে সভাপতি নির্বাচিত হন বাহাউদ্দিন নাছিম, সাধারণ সম্পাদক হন পঙ্কজ দেবনাথ।

এরপর ২০১২ সালে মোল্লা মো. আবু কাওছারকে সভাপতি এবং পঙ্কজ দেবনাথকে সাধারণ সম্পাদক করে স্বেচ্ছাসেবক লীগের কমিটি হয়েছিল। প্রায় সাত বছর তারা সংগঠনটির নেতৃত্ব দেন।

এরই মধ্যে ক্যাসিনোকাণ্ডে নাম আসায় আগের কমিটির সভাপতি মোল্লা মো. আবু কাওছারের পাশাপাশি সাধারণ সম্পাদক পঙ্কজ দেবনাথকেও সম্মেলনের আগে সংগঠন থেকে অব্যাহতি দেয়া হয়েছিল।

Leave a comment

উপরে