নিয়ামতপুরে বিএনপির দু’গ্রুপের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া

নিয়ামতপুরে বিএনপির দু’গ্রুপের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া

প্রকাশিত: ২২-০৮-২০১৯, সময়: ১৮:৫১ |
Share This

নিজস্ব পপ্রতিবেদক : নিয়ামতপুর : নওগাঁর নিয়ামতপুরে উপজেলা বিএনপির আহবায়ক কমিটি গঠন নিয়ে বিরোধের জেরে দু’গ্রুপের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া ঘটনা ঘটেছে। গত ১০ আগষ্ট নওগাঁ জেলা বিএনপির আহবায়ক মোঃ হাফিজুর রহমান, সিনিয়র যুগ্ন আহবায়ক আলহাজ্ব নাসির উদ্দিন আহমেদ ও যুগ্ন আহবায়ক আবু জাহিদ মোঃ রফিকুল আলম রফিক কর্তৃক স্বাক্ষরিত ৩৩ সদস্য বিশিষ্ট আহবায়ক কমিটি গঠন নিয়ে বেশ কয়েকদিন যাবত বিরোধ চলে আসছিল। এর প্রথম বিরোধ প্রকাশ্যে রূপ নেয় গত ১৬ আগষ্ট সাবেক উপজেলা বিএনপির সভাপতি ও সাবেক তিনবারের নির্বাচিত সংসদ সদস্য ডাঃ সালেক চৌধুরীর নেতৃত্বে বিক্ষোভ সমাবেশ ও মানববন্ধনের মধ্য দিয়ে।

বৃহস্পতিবার ডাঃ ছালেক চৌধুরীর নেতৃত্বে পুনরায় বিক্ষোভ মিছিল ও প্রতিবাদ করার চেষ্টা কালে বেশ কিছু নেতাকর্মী একত্রিত হয়, অপরপক্ষে নবগঠিত আহবায়ক কমিটির সদস্যরা নওগাঁ জেলা বিএনপির সাবেক সহ-সভাপতি ও নিয়ামতপুর উপজেলা বিএনপির আহবায়ক কমিটির সদস্য মোস্তাফিজুর রহমানের নেতৃত্বে কিছু নেতাকর্মী মুখোমুখি হয়। এতে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে দু’গ্রুপের মধ্যে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া শুরু হয়। এতে মোস্তাফিজুর গ্রুপের সদস্যরা ছত্রভঙ্গ হয়ে পালিয়ে যায়। পুলিশ এসে পরিস্থিতি শান্ত করে এবং সাথী প্লাজার সামনে পুলিশ অবস্থান গ্রহন করে।

নিয়ামতপুর উপজেলার সাবেক সভাপতি ও তিনবারের নির্বাচিত সাবেক সংসদ সদস্য ডাঃ ছালেক চৌধুরী এ প্রতিবেদককে বলেন, যারা ১৫ বছর যাবত বিএনপির সাথে কোন সম্পর্ক নেই। যারা নৌকায় ভোট দেয় তাদের নিয়ে বর্তমান উপজেলা বিএনপির আহবায়ক কমিটি গঠন করা হয়েছে। এটা একটা গভীর ষড়যন্ত্র। বিএনপিকে ধ্বংস করার চক্রান্ত। অবিলম্বে বিএনপির এই আহবায়ক কমিটি বাতিল করে প্রকৃত বিএনপির নেতা কর্মীদের নিয়ে সবার সাথে আলোচনা করে আহবায়ক কমিটি গঠন করা হোক। তা না হলে আগামীতে বৃহত্তর আন্দোলন গড়ে তোলা হবে। এতে নিয়ামতপুরের আইন শৃংখলার আরো অবনতি হতে পারে।

এ বিষেয়ে থানার অফিসার ইন চার্জ শামসুল আলম শাহ বলেন, এটি বিএনপির আভ্যন্তরিন বিষয়। আমরা পরিবেশ শান্ত রাখার জন্য তাদের ছত্রভঙ্গ করে দিয়েছি। আর যাতে আইন শৃংখলার অবনতি না হয় সে জন্য ঘটনা স্থলে ফোর্স মোতায়েন রেখেছি।

Leave a comment

উপরে