রাজশাহী আ.লীগে এবার পদের লড়াই

রাজশাহী আ.লীগে এবার পদের লড়াই

প্রকাশিত: ১০-০৬-২০১৯, সময়: ১৪:১৩ |
Share This

নিজস্ব প্রতিবেদক : চলতি বছরের আগস্টের আগেই তৃণমূল পর্যায়ের অধিকাংশ সম্মেলন শেষ করার টার্গেট নিয়ে কাজ শুরু করেছে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগ। চলতি মাস থেকেই এই কার্যক্রম পুরোদমে শুরু হবে। এবার তৃণমূলের কমিটিতে গুরুত্ব পাবে তরুণ নেতৃত্ব বলে দলটির নেতারা ইঙ্গিত দিয়েছেন।

ইতোমধ্যেই জেলা, উপজেলা, পৌরসভা, ইউনিয়ন ও ওয়ার্ড পর্যায়ে সম্মেলনের প্রস্তুতি নিতে ইউনিটগুলোর কাছে নির্দেশনা পৌঁছেছে। চলতি মাসেই ওয়ার্ড পর্যায়ে কমিটি নিয়ে কাজ শুরু হচ্ছে বলে জানিয়েছেন রাজশাহীর জেলা আওয়ামী লীগের নেতারা।

মহানগরী বাদ দিয়ে রাজশাহী জেলায় আওয়ামী লীগের ইউনিট রয়েছে ৮৬৯টি। এর মধ্যে ওয়ার্ড ইউনিট ৭৭৪, ইউনিয়ন ৭২, পৌরসভা ১৪ ও উপজেলা নয়টি।

রাজশাহী জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান আসাদ বলেন, ওয়ার্ড পর্যায়ে সম্মেলনের প্রস্তুতি নেয়ার জন্য ইতোমধ্যেই উপজেলা ও পৌরসভা কমিটিকে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। আগামী ২০ জুনের পর থেকে এ কার্যক্রম শুরু হবে। জুলাইয়ের মধ্যেই সব ওয়ার্ড ও ইউনিয়ন কমিটি করার টার্গেট রয়েছে। এর পর পৌরসভা ও উপজেলা সম্মেলন। উপজেলা ও পৌরসভার কমিটি সম্পন্ন করে জেলা সম্মেলনের প্রস্তুতি নেয়া হবে বলে জানান তিনি।

গত ডিসেম্বরে অনুষ্ঠিত জাতীয় সংসদ নির্বাচনে রাজশাহীর ছয়টি আসন থেকে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পাওয়ার লড়াইয়ে নামেন প্রায় অর্ধশত নেতা। এর পর শুরু হয় উপজেলায় দলীয় মনোনয়ন পাওয়ার লড়াই। চেয়ারম্যান, ভাইস চেয়ারম্যান ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে শতাধিক নেতা মনোনয়ন যুদ্ধ চালিয়েছেন। এবার যুদ্ধ ক্ষমতাসীন দলের পদের জন্য।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, সম্মেলনের ঘোষণা আসার পর নড়েচড়ে বসেছেন রাজশাহীর তৃণমূলের নেতারা। ইতোমধ্যেই পদ পেতে তাৎপরতা শুরু করেছেন অনেকেই। গুরুত্বপূর্ন পদেগুলোতে প্রার্থী হওয়ার ঘোষণা দিয়ে অনেকেই স্থানীয় সংসদ সদস্যসহ নেতাদের সঙ্গে লবিং শুরু করেছেন।

কেন্দ্রের নির্দেশনার বরাদ দিয়ে রাজশাহী জেলা আওয়ামী লীগের নেতারা জানান, এবার তৃণমূল পর্যায়ের কমিটিতে নতুন নেতৃত্বের ক্ষেত্রে অনেক বিচার-বিশ্লেষণ হবে। বিশেষ করে বিতর্কিত, অনুপ্রবেশকারী, দলের সিদ্ধান্তের বিরোধিতাকারী, কর্মীদের কাছে অগ্রহণযোগ্য ও সমালোচিতরা নতুন কমিটিতে স্থান পাবেন না।

এ রকম অভিযুক্ত যারা বর্তমান কমিটিতে আছেন তারাও বাদ পড়বেন। বিভিন্ন জায়গায় বিএনপি-জামায়াত থেকে আওয়ামী লীগে অনুপ্রবেশের অভিযোগ রয়েছে। সম্প্রতি অনুষ্ঠিত উপজেলা নির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থীর বিরোধিতা করে দলের অনেকেই বিদ্রোহী প্রার্থীর পক্ষে কাজ করেছেন। তাদের ব্যাপারে কঠোর অবস্থানে রয়েছে কেন্দ্রীয় কমিটি।

দলীয় সূত্র বলছে, বিতর্কিতদের বাদ দেওয়ার পাশাপাশি দলের সব পর্যায়ে পরিচ্ছন্ন ও তরুণ নেতাদের নিয়ে আসা হবে। বিশেষ করে ছাত্র রাজনীতি থেকে উঠে আসা যারা আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে সক্রিয় ভূমিকা রেখে চলেছেন তারাই এবার গুরুত্ব পাবেন কমিটিতে। এই সার্বিক বিষয়গুলো সুচারুভাবে তদারকি করবেন কেন্দ্রীয় টিমের সদস্যরা।

Leave a comment

আরও খবর

  • পবার ভাইস চেয়ারম্যান হলেন ওয়াজেদ ও আরজিয়া
  • রাসিকের মাস্টারপ্ল্যান হবে দেশের রোল মডেল : মেয়র
  • দেশে প্রথম লোহার খনির সন্ধান
  • মান্দায় মাকে হত্যা করে মেয়েকে ধর্ষণ
  • লিবিয়ায় জিম্মি রাজশাহীর ৪ যুবকের পরিবারে চরম উৎকণ্ঠা
  • পবায় চার ঘন্টায় ৪০০ ভোট
  • পবাতেও ভোটার উপস্থিতি কম
  • পাবলিক পরীক্ষার সময়সহ বেশ কিছু পরিবর্তনের সিদ্ধান্ত
  • চীনের সিচুয়ান প্রদেশে ভূমিকম্পে নিহত ১২
  • বিশ্বকাপে বাংলাদেশের রেকর্ড গড়া জয়
  • ‘বুয়েট ছাত্রদলের ভিপি ছিলেন বালিশ মাসুদুল’
  • ওসি মোয়াজ্জেম কারাগারে
  • মন্ত্রিসভার রদবদলে যা জানালেন মন্ত্রিপরিষদ সচিব
  • বি চৌধুরীর যুক্তফ্রন্টে অস্থিরতা
  • সেনাবাহিনীকে সব সময় জনগণের পাশে দাঁড়াতে হবে : প্রধানমন্ত্রী



  • উপরে