নারীমুক্ত দ্বীপটি এখন বিশ্ব ঐতিহ্যের অংশ

প্রকাশিত: ১০-০৭-২০১৭, সময়: ১৪:৫১ |
Share This

পদ্মা টাইমস ডেস্ক : দ্বীপের পবিত্র মুনাকাতা তাইশা ওকিটসুমিয়া ধর্মীয় উপাসনালয়। ছবি: এএফপিজাপানের ওকিনোশিমা দ্বীপ যে নারীমুক্ত, সেটা অনেকেরই হয়তো জানা। নারীমুক্ত এই দ্বীপ এখন বিশ্ব ঐতিহ্যের অংশ। রোববার একে বিশ্ব ঐতিহ্যের অংশ হিসেবে ঘোষণা করে জাতিসংঘের শিক্ষা, বিজ্ঞান ও সংস্কৃতিবিষয়ক সংস্থা ইউনেসকো।
জাপানের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের এই দ্বীপে কেবল পুরুষেরা প্রবেশ করতে পারেন। কোনো নারীকে এখানে প্রবেশ করতে দেওয়া হয় না। মূলত ‘পবিত্রতার’ কারণে এই নিয়ম বলে দাবি করা হয়।
চোখ-ধাঁধানো প্রাকৃতিক শোভায় সমৃদ্ধ জাপানের এই দ্বীপে আছে মুনাকাতা তাইশা ওকিটসুমিয়া নামে একটি ধর্মীয় উপাসনালয়, যা সপ্তদশ শতাব্দীতে সমুদ্রের দেবীর সম্মানে তৈরি। জাহাজের নাবিকদের নিরাপত্তার জন্য এটি প্রতিষ্ঠা করা হয়। জাহাজের নিরাপদ যাত্রার জন্য এখানে নানা রকমের আচার পালিত হয়। আর এ আয়োজনে শুধু পুরুষেরা অংশ নিতে পারেন। প্রার্থনার ‘পবিত্রতা’ রক্ষার স্বার্থে থাকেন না কোনো নারী।
এই দ্বীপ নিয়ে রয়েছে আরও অনেক নিষেধাজ্ঞা। দ্বীপে পা দেওয়ার আগে পুরো শরীর নির্দিষ্ট নিয়ম মেনে পরিষ্কার করে নিতে হয়। দ্বীপের ভেতরের বিস্তারিত বিবরণ কখনো কাউকে বলা যাবে না। এমনকি সেখান থেকে কোনো স্মারক নিয়ে বের হতে পারবেন না দর্শনার্থীরা। প্রতিবছর ২৭ মে দর্শকদের স্বাগত জানানো হয় দ্বীপটিতে। ওই দিনে মাত্র ২০০ দর্শনার্থী দ্বীপটিতে যেতে পারেন; এবং অবশ্যই তাঁরা সবাই পুরুষ।

উপরে