শীত যদি আসে, বসন্ত কি দূরে থাকে?

শীত যদি আসে, বসন্ত কি দূরে থাকে?

প্রকাশিত: ১৩-০২-২০১৮, সময়: ১৮:০০ |
Share This

খুর্শিদ রাজীব, রাবি : ইংরেজি সাহিত্যের ‘ভরত পাখি’ কবি শেলি লিখেছিলেন, ‘যদি শীত আসে, বসন্ত কি দূরে থাকতে পারে?’

বাংলার শ্যামল প্রকৃতিতেও শীত নেমেছিল, তীব্র সে শীত। শীতের তীব্রতায় হার মেনেছিল অতীতের সব রেকর্ড। কিন্তু নশ্বর এ পৃথিবীতে যে কোন কিছুই চিরস্থায়ী নয়! প্রখর সূর্য্যরে আবর্তনে হাড় কাঁপানো শীতও তাই ফুড়িয়ে গিয়েছিল। বসুধার শ্যামল আঁচলে নির্মম শীতের আঘাত পুষিয়ে দিতে বসন্ত এবারও হাজির হতে ভোলেনি। আকাশভরা তারার নিচে ধরণীর বুকে মন ভরানো হাজারো ফুলের সৌরভ আর কোকিলের করুণ সুরে সুরে অন্তরের ভেতরকার বর্ষীয়ান দুঃখবোধ ভোলাতে বসন্ত এসে গেছে, কবি শেলির মর্মোত্থিত কাব্যের সেই চিরাকাক্সিক্ষত বসন্ত।

যদিও এখনও পলাশের করুণ লালে রক্তিম হয়নি সবুজ শাখাগুলো। তাতে কি? কবি সুভাষ মুখোপাধ্যায় তো বলেছেনই, ‘ফুল ফুটুক আর নাই ফুটুক, আজ বসন্ত।’ বাংলা বছরের ফাগুন মাসের আজ প্রথম দিন, তাই ফাগুনী হাওয়ায় চেপে বসন্ত এসে গেছে।

বসন্ত মানেই চনমনে একটা ভাব আকাশের গায়ে, বাতাসে ভাসে। পশু, প্রকৃতি, মানুষ, সবার ওপর বৃষ্টির মত ঝরে নতুন জীবনের সঞ্জীবন। বসন্ত করেনা কাউকে বঞ্চিত তার অপার সুখবোধ থেকে। ফাগুনের এই প্রথম দিনে তাই বাসন্তী সঞ্জীবন সঞ্চরিত হয়েছিল রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়েও (রাবি)। উদযাপনে, আয়োজনে বসন্তের প্রথম দিনটি ছিল উৎসবমূখর। ক্যাম্পাসের সর্বত্রই যেন রঙ, আর রঙ। পাঞ্জাবি পরা তরুণেরা যেন বসন্তের জীবন্ত মূর্তি। মাথায় ফুলের মুকুট আর বাসন্তী রঙের শাড়িতে জড়ানো তরুনীরা যেন ফাগুনে ফোটা একেকটা বাহারী ফুল। সেই সঙ্গে গোলাপ, গাঁদা, ডালিয়াসহ ক্যাম্পাসের গাছে গাছে বর্ণালি ফুলগুলোও যেন বসন্তের আগমন জানান দিচ্ছে খুব ভালোভাবেই। শীতের রিক্ততা মুছে প্রাণের স্পন্দনে একটু একটু করে জেগে উঠেছে প্রকৃতি, ঠিক তেমনি করে বসন্তের ফুলে সেজে উঠেছে মতিহারের সবুজ চত্বর।

বসন্তকে বরণ করে নিতে ফাগুনের প্রথম প্রহরেই বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলা প্রাঙ্গণে আয়োজন করা হয় বসন্তবরণ ও পিঠা উৎসবের। মঙ্গলবার বেলা ১১টায় প্রধান অতিথি হিসেবে অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র উপদেষ্টা অধ্যাপক জান্নাতুল ফেরদৌস। এসময় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জনসংযোগ দফতরের প্রশাসক অধ্যাপক প্রভাষ কুমার কর্মকার ও শহীদ সুখরঞ্জন সমাদ্দার ছাত্র-শিক্ষক সাংস্কৃতিক কেন্দ্রের পরিচালক হাসিবুল আলম প্রধান।

পরে চারুকলা অনুষদের আয়োজনে একটি আনন্দ শোভাযাত্রা ক্যাম্পাস প্রদক্ষিণ করে। এছাড়া চারুকলার মুক্তমঞ্চে দিনব্যাপী অনুষ্ঠিত হয় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের। একপাশে পিঠার স্টলগুলো থরে থরে সাজানো। সেগুলোতে সাজানো রয়েছে ভিন্ন রঙ ও স্বাদের পিঠা। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গেই দলবেঁধে তরুণ-তরুণীরা ভিড় করে সেখানে। অনেকে এসেছেন প্রিয়জনকে সঙ্গে নিয়ে। শুধুমাত্র ক্যাম্পাসের শিক্ষার্থীরাই নয়। বাইরের তরুণ-তরুণীরাও ক্যাম্পাসের নানা অনুষ্ঠানে এসে যোগ করেছে নতুন মাত্রা।

বসন্তবরণ করে নিতে ক্যাম্পাসে শোভাযাত্রা বের করে কেন্দ্রীয় সাংস্কৃতিক জোট আয়োজন করে শোভাযাত্রা, সাংস্কৃতিক আড্ডা, চড়–ইভাতি ও নবীনবরণ। নানা আয়োজনে বসন্তকে বরণ করে নিয়েছে সংগীত বিভাগ, ফোকলোর বিভাগ ও বাংলা বিভাগ। বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগারে ‘দৃষ্টিভঙ্গি বদলান, জীবন বদলে যাবে’ স্লোগাণে রাবি কোয়ান্টাম ম্যাথড দিনব্যাপী চিত্রকলা প্রদর্শনীর আয়োজন করেছে।

বিশ্ববিদ্যালয়ে নতুন শিক্ষাবর্ষের শ্রেণি কার্যক্রম শুরু হয়েছে। ক্যাম্পাসের প্রথম বসন্তবরণে তাদের মাঝে দেখা দিয়েছে আলাদা প্রাণচাঞ্চল্য। পাঞ্জাবি-শাড়ি পরে বন্ধুরা মিলে পুরো ক্যাম্পাস দাপিয়ে বেড়াচ্ছে হই-হুল্লোড় করে। প্রথম বর্ষের শাওন তাদেরই একজন। তিনি বলেন, আগে কখনো বসন্ত বরণের এতো আয়োজন প্রত্যক্ষ করিনি। ক্যাম্পাসের নানা উৎসবে মুগ্ধ হয়ে যাচ্ছি। প্রাণভরে উপলব্ধি করছি আজকে ক্যাম্পাসের আনন্দ।

তবে উৎসবের এই বসন্ত আসলেও অনেকের মনেই বাজছে বিদায়ের করুণ সুর। কারণ পড়াশোনা শেষ হয়ে আসছে তাদের। ক্যাম্পাস জীবনে এটাই তাদের শেষ বসন্ত। তাই বন্ধুরা মিলে যতটুকু পারা যায় প্রাণ ভরে নিচ্ছেন বসন্তের আস্বাদ। কথা হয় এমনই একজন শিক্ষার্থী কায়কোবাদ খানের সঙ্গে। তিনি বলেন, মতিহারের সবুজ চত্বর এমনিতেই আমাদের কাছে উপভোগ্য। একই সঙ্গে বসন্ত বরণের প্রাণচাঞ্চল্য মুগ্ধ করছে। ক্যাম্পাসের শেষ বসন্তকে স্বরণীয় করে রাখতে বন্ধুদের সঙ্গে ছবি তুলে রাখছি। যতটুকু পারছি ক্যাম্পাস জীবনের শেষ বসন্তটা উপভোগ করতে। এটাই তো শেষ, এরপর জীবনের যান্ত্রিকতার শুরু।

আরও খবর

  • বগুড়ার শিবগঞ্জে দি ব্রিলিয়্যান্ট পরীক্ষা
  • ‘শিক্ষার উন্নয়নে সব সময় কাজ করে যাব’
  • পাঁচবিবিতে ৯ ছাত্রকে পিটিয়ে আহত করল শিক্ষক
  • রাজশাহীতে কিন্ডার গার্টেন এসোসিয়েশনের বৃত্তি পরীক্ষা
  • ভিকারুননিসায় ছাত্রীদের কাছ থেকে অতিরিক্ত ৮০ লাখ টাকা আদায়!
  • রাজশাহীতে শিমুল মেমোরিয়াল সাফল্য স্কলারশীপ
  • রাবিতে শেষ হলো আন্তঃহল সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতা
  • রাবির জুবেরী মাঠে ভবন নির্মাণে শিক্ষকদের আপত্তি
  • উন্নয়নের পক্ষে রায় দেওয়ার আহ্বান রাসিক মেয়রের
  • দাবি আদায়ে অনশনে ভিকারুননিসার ছাত্রীরা
  • রাবিতে সাংবাদিকদের দায়িত্ব পালনে পুলিশের বাধা
  • হাসনা হেনার মুক্তির দাবিতে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ
  • রাবিতে আন্তঃহল সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতা সোমবার
  • ধুনটে ২৯ শিক্ষার্থী পেয়েছে ব্যারিস্টার স্কলারশিপ
  • রাবি আইবিএ’র গ্রাজুয়েশন সেরেমনি


  • উপরে