‘আম্মু বলেছে, ড্রাইভ স্লো’

প্রকাশিত: ২২-০৯-২০১৯, সময়: ১৬:১৬ |
Share This

নিজস্ব প্রতিবেদক : রাজশাহীর ভদ্রা এলাকার বাসিন্দা সোহরাওয়ার্দী আহম্মেদ সাগর। রাজশাহীর একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ বিভাগের এই ছাত্রের বাড়তি আগ্রহ মোটরসাইকেলের প্রতি। কয়েক বছর ধরে বাসায় বলার পরে গত ফেব্রুয়ারি মাসে তার মা মোটরসাইকেল কিনে দিতে রাজি হন। তবে তা শর্ত সাপেক্ষে।

মায়ের শর্ত, মোটরসাইকেল বেশি গতিতে চালানো যাবে না। মায়ের আদরের ছেলেটি এ শর্ত মেনে নেয়। শর্ত অনুযায়ী মোটরসাইকেল কিনে দেন মা।

মোটরসাইকেল পাওয়ার পরে আম্মুর কথা যাতে ভুলে না যায়, তাই অভিনব এক কৌশল ব্যবহার করেছে এই তরুণ। মোটরসাইকেলের পিছনে লিখেছেন ‘আম্মু বলেছে, ড্রাইভ স্লো’।

পদ্মাটাইমসের সাথে আলাপকালে সাগর জানান, মায়ের শর্ত যাতে তিনি ভুলে না যান তাই মোটরসাইকেলের সামনে কথাটি লিখে রেখেছেন।

তিনি বলেন, ‘প্রতিদিন অনেক দুর্ঘটনা ঘটে। মোটরসাইকেলে দুর্ঘটনা অন্যান্য ঘটনার চেয়ে বেশি ভয়াবহ হয়। তাই আম্মুর কথাটা মানতে চাই। আর আম্মুর কথাটা ভুলে না যাই, তাই গাড়িতে লিখে রেখেছি এটি।’

সাগর মনে করেন, তার মায়ের মতো সকল মা তার সন্তানদের এই একই কথা বলেন। কিন্তু রাস্তায় বের হওয়ার পরে সন্তানরা কথাটি ভুলে যায়।

নিজের মায়ের কথা পালনের পাশাপাশি, তার এই লেখাটি অনেক ছেলের দৃষ্টি কাড়বে এবং তারাও দ্রুত ছুটে চলার অহেতুক প্রবণতা থেকে সরে আসবে বলে আশা করেন সোহরাওয়ার্দী আহম্মেদ সাগর।

উপরে