যে হাসপাতালে চিকিৎসায় শোনানো হয় কোরআন তিলাওয়াত (ভিডিও)

প্রকাশিত: ০৬-১১-২০১৮, সময়: ১৩:৫৪ |
Share This

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : মহান আল্লাহতায়ালা কোরআনে বলেছেন, ‘আমি কোরআনে এমন বিষয় নাজিল করেছি, যা রোগের সুচিকিৎসা ও মুমিনদের জন্য রহমত।’ বলেছেন- হাসপাতালের একজন চিকিৎসক।

তিনি বলেন, ‘কোরআনে আছে- সর্ব রোগের শেফা। আর সেই বিশ্বাস থেকে এ হাসপাতালে কোরআন তিলাওয়াতের মাধ্যমে চিকিৎসা দেয়া হয়।’ এ হাসপাতালটি পাকিস্তানের লাহোরে অবস্থিত।

এখানে আইসিইউ ওয়ার্ডে মুমূর্ষু রোগীদের সুরা আর-রহমান শোনানো হয়ে থাকে বলে জানিয়েছেন হাসপাতালের চিকিৎসকবৃন্দ।

লাহোরের হাসপাতালের আইসিইউতে চালু এ চিকিৎসার খবর ইতিমধ্যে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল।

ভাইরাল সেই ভিডিওতে দেখা গেছে, আইসিইউ চেম্বারে সুরা আর-রহমান শুনানো হচ্ছে রোগীদের।

এ ঘটনার পর ওই হাসপাতালটিতে রীতিমতো রোগীদের ভিড় জমাচ্ছে জানিয়েছে পাকিস্তানের সংবাদমাধ্যম দি নিউজ।

সংবাদমাধ্যমটিকে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জানায়, প্রত্যেক রোগীকে দুপুর থেকে শুরু করে সন্ধ্যা পর্যন্ত কারি বাসেতের কণ্ঠে সুরা আর-রহমান শোনানো হয়।

চিকিৎসকদের দাবি, আমাদের এ পদ্ধতি প্রয়োগ করার ফলে অনেক ভালো ফল পাচ্ছেন রোগীরা।

তারা বলছেন, আমাদের এমন অনেক রোগী আছেন, যারা ভেন্টিলেশনে থাকার পরও কোনো উন্নতি হয় না; কিন্তু যখন থেকে আমরা সুরা আর-রহমান শোনানো শুরু করেছি, তখন থেকে আমরা তাদের মধ্যে অনেক উন্নতি দেখেছি।

তারা আরও জানান, শুধু মুসলিম রোগীরাই নন, অনেক হিন্দু, খ্রিস্টান, ইথিস্টসহ অন্য ধর্মাবলম্বীরাও এ থেরাপি নিয়ে থাকে।

হাসপাতালে এমন চিকিৎসার ব্যাপারে জানতে চাইলে পাকিস্তানের ইসলামিক হেলথ রিসার্চ অ্যাসোসিয়েশনের প্রধান ড. মুহাম্মদ রিয়াজ দি নিউজকে জানান, ‘এ ব্যাপারে পবিত্র আল কোরআনের সুরা তাহাতেই বলা হয়েছে।’

তিনি বলেন, ‘কোরআন পড়লে মানুষের আধ্যাত্মিক প্রশান্তি মিলে, যা মুমূর্ষু রোগীদের জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ।’

তিনি আরও যোগ করেন, ‘কোরআনের আয়াত পড়লে বিষণ্নতা ও উদ্বেগ কমে, যা হার্ট সুস্থ রাখতে সাহায্য করে। এ কারণেই নিয়মিত কোরআন পাঠে আপনি ভালো থাকবেন নিশ্চিত।’

আইসিইউতে রোগীদের সুরা আর-রহমান শোনানোর চিকিৎসা কতটুকু কার্যকর তা নিয়ে সম্প্রতি দেশটির জনপ্রিয় টিভি চ্যানেল পিটিভিতে একটি অনুষ্ঠান প্রচারিত হয়েছে।

সেই অনুষ্ঠানে একজন চিকিৎসক বিষয়টির কার্যকারিতা নিয়ে আলোচনা করেন।

Leave a comment

উপরে