বাগাতিপাড়ায় প্রশাসনের হস্তক্ষেপে বাল্য বিয়ে থেকে রক্ষা

প্রকাশিত: ০৮-০৩-২০১৮, সময়: ১৮:০৮ |
Share This

নিজস্ব প্রতিবেদক, নাটোর : নাটোরের বাগাতিপাড়া উপজেলা প্রশাসনের হস্তক্ষেপে বাল্য বিয়ের হাত থেকে রক্ষা পেয়েছে নাজমিন (১৬) নামে এক স্কুল ছাত্রী। বুধবার রাত আটটার দিকে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নাসরিন বানুর নির্দেশে উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভুমি) মেরিনা সুলতানা বিয়ে বাড়িতে গিয়ে এ বিয়ে বন্ধ করেন।

জানা গেছে, নাজমিন উপজেলার বাগাতিপাড়া সদর ইউনিয়নের জিগরী সরকারপাড়া গ্রামের নাজিম আলীর মেয়ে। সে জিগরী উচ্চ বিদ্যালয়ে দশম শ্রেণির ছাত্রী।

সহকারি কমিশনার (ভুমি) মেরিনা সুললতানা জানান, নাজমিন এর বিয়ে একই গ্রামের বক্কর আলীর ছেলে সোহেল আলীর সঙ্গে ঠিক করেন তার পরিবারের লোকজন। বুধবার গায়েহলুদ ও আগামী শুক্রবার বিয়ে হওয়ার কথা ছিল। সে উপলক্ষে কনের বাড়িতে বিয়ের আয়োজন চলছিল। এমন সময় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নাসরিন বানু গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বিয়ের খবরটি জানতে পারেন।

এরপর তিনি ও মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা হাবিবা খাতুন বিয়ে বাড়িতে গিয়ে কনের বাবা-মা এবং পরিবারের সকলকে বাল্য বিয়ের কুফল সম্পর্কে অবহিত করলে তারা মেয়ের বিয়ে ১৮ বছর না হওয়া পর্যন্ত দিবে না বলে মুচলেকা দেন। তারপর ঘটনাটি বর পক্ষকেও জানানোর ব্যবস্থা করা হয়।

উপরে