প্রিয়জনের সঙ্গে ঝগড়া করলে শরীর অসুস্থ হয়

প্রিয়জনের সঙ্গে ঝগড়া করলে শরীর অসুস্থ হয়

প্রকাশিত: ০৬-০২-২০২০, সময়: ১৭:১৪ |
Share This

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : সঙ্গীর সঙ্গে নিয়মিত ঝগড়া করার অভ্যাস আছে আপনার? যে বিষয়গুলো আলোচনা করেই মিটমাট করা যায় সেগুলো নিয়ে ঝগড়া করে গায়ের ঝাল মেটান? এতে আপনার সঙ্গীর মানসিক ক্ষতি তো হয়ই, এমনকি আপনার শরীরেরও ক্ষতি হয়!

‘সাইকোনিউরোএন্ডোক্রিনোলজি’ নামক জার্নালে কিছুদিন আগে প্রকাশিত একটি সমীক্ষায় বলা হয়েছে, সঙ্গীর সঙ্গে ঝগড়াঝাটি করলে ক্ষুদ্রান্ত্রের দেওয়ালের লাইনিং ব্যাপকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়। তখন হজম না হওয়া খাবার, ব্যাকটেরিয়া আর বর্জ্য পদার্থ ক্ষুদ্রান্ত্র থেকে ‘লিক’ করে এবং এই সব দূষিত পদার্থ সরাসরি গিয়ে রক্তে মেশে।

আমেরিকার ওহায়ো বিশ্ববিদ্যালয়ের একদল গবেষকের এই রিসার্চের ফলে যে তথ্য প্রকাশ পেয়েছে, তাতে স্পষ্ট বোঝা যায় যে অসুখী বৈবাহিক কিংবা প্রেমের সম্পর্ক আর শারীরিক অসুস্থতার মধ্যে গভীর সম্পর্ক আছে।

গবেষকদলের প্রধান ডেনিস কিকোল্ট গ্লেসার বলছেন, ‘সারাদিনের ব্যস্ততার শেষে বাড়ি ফেরার পর আমরা সঙ্গীর কাছেই আশ্রয় খুঁজি। কিন্তু সেই সঙ্গীর সঙ্গে যখন সম্পর্ক খারাপ হয়ে যায়, তখন বাড়িটাও স্ট্রেসের অন্যতম প্রধান কারণ হয়ে দাঁড়ায়। ঘরেবাইরে দুটি দিকের সাঁড়াশি আক্রমণ শরীর আর মনের পক্ষে বাড়তি চাপের কারণ হয়ে দাঁড়ায়। যে কারণে আপনি কখনোই পুরোপুরি রিল্যাক্স করতে পারেন না। ফলে ডিপ্রেশন তো বটেই, হার্টের রোগ আর ডায়াবেটিসও হতে পারে।’’

তাই সবরকম চেষ্টার পরেও দুজনের মধ্যে শান্তি ফিরিয়ে আনা সম্ভব না হলে অসুখী সম্পর্ক থেকে বেরিয়ে আসুন। মনে রাখবেন, ঝগড়া কখনোই সমাধানের দিকে নিয়ে যায় না, তাতে মানসিক অশান্তি আর শারীরিক অসুস্থতা দুটোই চরমে পৌঁছতে পারে।

Leave a comment

উপরে