আধুনিক নারীর থাকা চাই যে ৯টি গুণ

আধুনিক নারীর থাকা চাই যে ৯টি গুণ

প্রকাশিত: ১৪-০৯-২০১৯, সময়: ১৭:৩০ |
Share This

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : কেবল পোশাকে বা চালচলনে আধুনিক হলেই বুঝি আধুনিক হওয়া যায়, আর কিছু প্রয়োজন নেই? অবশ্যই আছে। আধুনিকতার সংজ্ঞা আজকাল পাল্টে গেছে। অনেকেই আধুনিকতা আর উগ্রতার মাঝে পার্থক্য করতে পারেন না। তবে এটা সত্যি যে নারীরা বদলে যাচ্ছেন দ্রুত, পুরুষের তুলনায় অনেক বেশি হচ্ছে নারীদের পরিবর্তন। জেনে নিন আজকালকার আধুনিক নারীর ৯টি বৈশিষ্ট্য।

১) লেখাপড়া অবশ্যই শেষ করতে হবে
একটা সময় ছিল, মেয়েরা লেখাপড়াটা খুব দায়সারা ভাবে করতেন। ভাবতেন যে ভালো একটা বিয়ে হলে লেখাপড়ার কী দরকার? এখনো আমাদের সমাজে আছে এই বিষয়টি। তবে বিবাহিত হোন বা অবিবাহিত, লেখাপড়াটা অবশ্যই মনযোগ দিয়ে শেষ করতে হবে। চাকরি করতে চান বা হবেন গৃহবধূ, শিক্ষার কোন বিকল্প নেই।

২) ক্যারিয়ার নিয়ে ভাবতে পারাটা খুব ভালো
হয়তো আপনার চাকরি করার প্রয়োজন নেই, কিন্তু তবুও নিজের একটা ক্যারিয়ার গড়ার চেষ্টা অবশ্যই করুন। প্রতিটি ছোট খরচের জন্য স্বামীর সামনে হাত পেতে টাকা নেয়ার চাইতে নিজের খরচ নিজে যোগানোটা কি যথেষ্ট সম্মানের বিষয় নয়?

৩) ঘরে-বাইরে সমানতালে
মেয়েরা যেন আজকাল দশভুজা, একলাই সামাল দিচ্ছে সবদিক। ঘর সামলাচ্ছেন, ক্যারিয়ার সামলাচ্ছেন, সন্তান, পরিবার, সামজিকতা সবকিছুই তারা সামাল দিচ্ছেন একলা। একজন আধুনিক নারীকে অবশ্যই জানতে হবে এই ভারসাম্য রক্ষার কৌশল।

৪) বুঝতে হবে উগ্রতা আর আধুনিকতার মাঝে পার্থক্য
আধুনিকতা মানে রাত বিরাতে পার্টি করা নয়, একাধিক প্রেমিক থাকা নয়, পরিবারের সাথে বেয়াদবি নয় কিংবা আমাদের সমাজের সাথে বেমানান পোশাক পরা নয়। আধুনিকতার অর্থ নিজের চিন্তা ও চেতনায় আধুনিক হওয়া, পরনির্ভরশীলতার শেকল ভেঙে বের হয়ে আসা। সেটাই আধুনিক নারীর পরিচয়।

৫) সবমিলিয়ে স্মার্ট
নিজের সাজ, পোশাক, আচার আচরণ ইত্যাদি সব ক্ষেত্রে রুচিশীলতার ছাপ রাখতে পারাই আধুনিক নারীর বৈশিষ্ট্য। বাইরে ও ভেতরে সমানভাবে স্মার্ট হওয়া চাই।

৬) প্রেমের জন্য অস্থির নয়
হ্যাঁ, প্রেম জীবনের একটা অংশ বটে। কিন্তু পুরো জীবন নয়। প্রেমের জন্য নিজের জীবন নষ্ট করে ফেলা বা প্রেমে ব্যর্থ হয়ে বাকি জীবন কাঁদতে কাঁদতে পার করে দেয়ার যুগ শেষ। আজকালকার নারী জানেন প্রেমকে সামলে জীবন চালাতে।

৭) বিয়ে করতে হবে বলেই করা নয়
মেয়ে মানুষ, বিয়ে তো করতেই হবে! এইভাবনা আজকালকার নারী মোটেও ভাবেন না। তারা বিয়ে করেন তাকেই, যার সাথে আক্ষরিক অর্থেই জীবন কাটাতে চান। জীবন একটাই, পাশে একজন যোগ্য স্বামীর গুরুত্ব বোঝেন আধুনিক নারী।

৮) তারা জানেন “না” বলতে
নারী মানেই সবকিছু মুখ বুজে সয়ে যাওয়া নয়। আজকালকার নারী শিখে নেন “না” বলতে।

৯) দায়িত্বশীল অবশ্যই
কেবল পুরুষেরই কি সকল দায়িত্ব? নারীর কি কোন দায় নেই? অবশ্যই আছে,। হয়ে উঠুন একজন দায়িত্বশীল কন্যা কিংবা স্ত্রী, পিতা বা স্বামীর কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে দায়িত্ব ভাগ করে নিন। জীবন হয়ে উঠবে সুন্দর, হয়ে উঠবেন সম্মানের পাত্রী।

উপরে