রোহিঙ্গা গণহত্যায় সুচির বিরুদ্ধে মামলা

রোহিঙ্গা গণহত্যায় সুচির বিরুদ্ধে মামলা

প্রকাশিত: ১৪-১১-২০১৯, সময়: ১৯:১৪ |
Share This

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : রোহিঙ্গাদের ওপর বর্বর হত্যাকাণ্ড ও ভয়াবহ নির্যাতন চালানোর সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে মিয়ানমারের স্টেট কাউন্সিলর ও নোবেল জয়ী অং সান সুচির বিরুদ্ধে আর্জেন্টিনায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। বুধবার রোহিঙ্গা বিষয়ক ও লাতিন আমেরিকার বেশ কয়েকটি মানবাধিকার সংগঠন এই মামলা করেছে।

দায়ের করা এই মামলায় আসামি করা হয়েছে সুচি এবং মিয়ানমারের কয়েক শীর্ষ কর্মকর্তাকে। এই প্রথম রোহিঙ্গা নির্যাতনের অভিযোগে সুচির বিরুদ্ধে কোনো মামলা দায়ের হলো। খবরে বলা হয়, ‘সর্বজনীন এখতিয়ার’ নীতি মেনে সুচির বিরুদ্ধে মামলা দায়ের হয়েছে আর্জেন্টিনায়। এই নীতি মেনে, বিশ্বের যেকারো বিরুদ্ধে যুদ্ধাপরাধ বা মানবতাবিরোধী অপরাধের ক্ষেত্রে মামলা দায়ের ও বিচারকার্য চালাতে পারে যেকোনো রাষ্ট্র বা আন্তর্জাতিক সংগঠন।

মামলায় মিয়ানমারের সেনাপ্রধান মিন অং হাইং এবং অং সান সুচি-সহ শীর্ষ সামরিক ও রাজনৈতিক নেতাদের বিচারের সম্মুখীন করার দাবি জানানো হয়েছে। মামলার আর্জিতে বলা হয়েছে- এসব ব্যক্তির কারণে অস্তিত্ব সংকটে ভুগছেন রোহিঙ্গা মুসলমানেরা।

গত সোমবার জাতিসংঘের সর্বোচ্চ আদালতে মিয়ানমার সরকারের বিরুদ্ধে মামলা করেছে গাম্বিয়া। তবে শান্তিতে নোবেল পুরস্কার বিজয়ী ও মিয়ানমারের সাবেক গণতান্ত্রিক আইকন সুচির বিরুদ্ধে রোহিঙ্গা নির্যাতন নিয়ে এটাই প্রথম কোনো আইনি পদক্ষেপ।

২০১৭ সালের আগস্ট থেকে রাখাইন রাজ্যে রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে সামরিক অভিযানের নামে হত্যাযজ্ঞ চালায় মিয়ানমারের সামরিক বাহিনী। তাদের নৃশংসতা থেকে বাঁচতে সীমান্ত পাড়ি দিয়ে বাংলাদেশে পালিয়ে এসেছে সাড়ে সাত লাখের বেশি রোহিঙ্গা মুসলমান।

Leave a comment

উপরে