ভারত-চীন উত্তেজনা, পশ্চিমবঙ্গে মোতায়েন হচ্ছে রাফায়েল

ভারত-চীন উত্তেজনা, পশ্চিমবঙ্গে মোতায়েন হচ্ছে রাফায়েল

প্রকাশিত: ০৭-০১-২০১৭, সময়: ১৪:২১ |
Share This

পদ্মা টাইমস ডেস্ক: পশ্চিমবঙ্গের হাসিমারা বিমানঘাঁটিতে রাফায়েল যুদ্ধবিমান মোতায়েন করতে যাচ্ছে ভারত। চীনের সঙ্গে পরমাণু অস্ত্র নিয়ে উত্তেজনার পরিপ্রেক্ষিতে রাফায়েল যুদ্ধবিমান মোতায়েনের পরিকল্পনা ভারতের। এটি হবে ভারতের প্রথম রাফায়েল স্কয়াড্রন বিমানঘাঁটি। রাফায়েল যুদ্ধবিমান পরমাণু অস্ত্র বহনে সক্ষম।
আসামের তেজপুর ও চাবুয়া থেকে এরই মধ্যে সুখোই-৩০এমকেআই যুদ্ধবিমান পরিচালনা করা হচ্ছে। এবার পশ্চিমবঙ্গের হাসিমারা বিমানঘাঁটি থেকে ১৮টি রাফায়েল যুদ্ধবিমান ২০১৯ সাল নাগাদ পরিচালানার পরিকল্পনা চূড়ান্ত করেছে বিমানবাহনী।
ভারত বর্তমানে আন্তঃমহাদেশীয় বিধ্বংসী ক্ষেপণাস্ত্র (আইসিবিএম) অগ্নি-৪ ও অগ্নি-৫-এর চূড়ান্ত পরীক্ষা চালাচ্ছে। কয়েক বছর আগে অগ্নি-৩ ক্ষেপণাস্ত্র পরমাণু অস্ত্র ভান্ডারে ব্যবহারের জন্য মজুত করা হয়েছে। ভারতের পরমাণু অস্ত্র ভান্ডারের দায়িত্বে রয়েছে বিশেষ বাহিনী স্ট্র্যাটেজিক ফোর্সেস কমান্ড (এসএফসি)।
২০১৬ সালের সেপ্টেম্বর মাসে ফ্রান্সের সঙ্গে ৫৯ হাজার কোটি রুপির রাফায়েল যুদ্ধবিমান ক্রয় চুক্তি করে ভারত। এ চুক্তির আওতায় ২০২২ সালের মাঝামাঝি ৩৬টি যুদ্ধবিমান পাবে ভারতের বিমানবাহিনী। বিশেষ ক্ষমতাসম্পন্ন এসব বিমান উঁচু অঞ্চলে অভিযান চালাতে সক্ষম। প্রতিটি বিমান ৯ দশমিক ৩ টন ওজনের অস্ত্র বহন করতে পারবে। একই সঙ্গে আকাশ প্রতিরক্ষা ও স্থল অভিযানে কাজে লাগানো যাবে রাফায়েল যুদ্ধবিমান।
হাসিমারা বিমানঘাঁটিতে এখন মিগ-২৭ যুদ্ধবিমান রয়েছে। আগামী দুই-তিন বছরের মধ্যে তা প্রত্যাহার করে নিয়ে সেখানে রাফায়েল যুদ্ধবিমান মোতায়েন করা হবে। এ ছাড়া উত্তর প্রদেশের সারসাওয়া বিমানঘাঁটিতে রাফায়েল যুদ্ধবিমান মোতায়েনের পরিকল্পনা করছে ভারত। তবে অন্য কোনো ঘাঁটিতেও তা করা হতে পারে।

উপরে