করোনা ভাইরাস প্রবেশে ঝুঁকির তালিকায় নেই বাংলাদেশ

করোনা ভাইরাস প্রবেশে ঝুঁকির তালিকায় নেই বাংলাদেশ

প্রকাশিত: ০৯-০২-২০২০, সময়: ২১:৪২ |
Share This

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : আকাশপথে করোনাভাইরাস প্রবেশ করতে পারে- এমন ৩০টি দেশের তালিকা করেছে জার্মানির একটি বিশ্ববিদ্যালয়। এই তালিকায় মালয়েশিয়া, সিঙ্গাপুর, এমনকি আমাদের পার্শ্ববর্তী দেশ ভারতের নাম থাকলেও বাংলাদেশের নাম নেই।

শনিবার জার্মানির হামবোল্ড ইউনিভার্সিটি অ্যান্ড রবার্ট কোচ ইনস্টিটিউট এই তালিকা প্রকাশ করে। বিশ্বজুড়ে ৪ হাজার বিমানবন্দরে উড়োজাহাজ চলাচলের ধরন বিশ্লেষণ করে এদের মধ্যে পাওয়া ২৫ হাজারেরও বেশি প্রত্যক্ষ যোগাযোগের ভিত্তিতে এই তালিকা প্রণয়ন করা হয়।

এই তালিকায় মালয়েশিয়া ও সিঙ্গাপুর আছে যথাক্রমে ৮ ও ৯ নম্বরে। এই দু’টি দেশে আকাশপথে করোনা প্রবেশের আশঙ্কা যথাক্রমে দশমিক ৬৮৪ ও দশমিক ৫৪০ শতাংশ। আমাদের পার্শ্ববর্তী দেশ ভারতের অবস্থান তালিকার ১৭ নভেম্বর। ভারতে আকাশপথে করোনা প্রবেশের আশঙ্কা দশমিক ২১৯ শতাংশ।

হামবোল্ড ইউনিভার্সিটি অ্যান্ড রবার্ট কোচ ইনস্টিটিউটের গবেষণা অনুযায়ী, ভারতের দিল্লির ইন্দিরা গান্ধী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর দিয়ে করোনা প্রবেশের ঝুঁকি সবচেয়ে বেশি। এরপর আছে যথাক্রমে মুম্বাইয়ের ছত্রপতি শিবাজি আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর ও কলকাতা বিমানবন্দরের নাম। এ ছাড়া বেঙ্গালুরু, চেন্নাই, হায়দরাবাদ ও কোচি বিমানবন্দরও আছে ঝুঁকিতে।

গত বছরের ডিসেম্বরে চীনের হুবেই প্রদেশের উহানে প্রথমবারের মতো করোনাভাইরাস শনাক্ত হওয়ার পর চীনসহ অন্তত ২৮টি দেশে ছড়িয়ে পড়েছে প্রাণঘাতী এই ভাইরাস। এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে এখন পর্যন্ত অন্তত ৮১১ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ ছাড়া আক্রান্তের সংখ্যা ৩৭ হাজার ছাড়িয়ে গেছে।

চীনের সর্বত্র করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ায় উৎপত্তিস্থল উহান শহরসহ বেশিরভাগ এলাকা কার্যত অবরুদ্ধ করে রাখা হয়েছে। বেশিরভাগ সড়ক বন্ধ রাখা হয়েছে। বন্ধ রয়েছে গণপরিবহনও। সংক্রমণ ঠেকাতে চীনের বিভিন্ন শহরেও নানা ধরনের নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা হয়েছে।

উদ্ভূত পরিস্থিতিতে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বিশ্বজুড়ে জরুরি অবস্থা জারি করেছে। এ ছাড়া বেশ কিছু দেশ চীনের নাগরিক বা চীন থেকে আগত অন্য দেশের নাগরিকদের জন্য ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে। সূত্র: এনডিটিভি ও এএফপি

Leave a comment

উপরে