রামেক হাসপাতালের টিকিট কালোবাজারে

রামেক হাসপাতালের টিকিট কালোবাজারে

প্রকাশিত: ০৬-১২-২০১৯, সময়: ১৩:৩৬ |
Share This

নিজস্ব প্রতিবেদক : রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের বহির্বিভাগে ১০ টাকার টিকিট কালোবাজারে ৫০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে। বহির্বিভাগে চিকিৎসা নিতে আসা রোগীদের দীর্ঘ লাইনের ভোগান্তির সুযোগ নিয়ে এক শ্রেণির দালাল আগে থেকেই টিকিট কেটে রেখে সেগুলো কালোবাজারে বিক্রি করছে বেশি দামে। এ নিয়ে রোগী ও স্বজনদের মাঝে ক্ষোভ দেখা দিয়েছে।

বহির্বিভাগে চিকিৎসা নিতে যাওয়া রোগী ও স্বজনদের সঙ্গে অসদাচরণ ও হয়রানিরও অভিযোগ আছে কাউন্টারের কর্মচারীদেরও বিরুদ্ধে। সম্প্রতি রামেক হাসপাতালের বহির্বিভাগের এমন চিত্র দেখা গেছে।

গত মঙ্গলবার পুরুষ কাউন্টারে ২৬৩টি টিকিট বিক্রি হয়। আর নারীদের জন্য মেডিসিন বিভাগের ৩৩৯টি টিকিট বিক্রি হয়। তবে কাউন্টারের বাইরে থেকে আরও অন্তত শতাধিক রোগীর জন্য টিকিট সংগ্রহ করা হয় ৫০ টাকা করে। বিশেষ করে নারী ও শিশুদের জন্য চিকিৎসা নিতে আসা রোগী ও তাদের স্বজনরা কাউন্টারের বাইরে থেকে বেশি দামে টিকিট কিনেছেন।

দেখা গেছে, সেবা পেতে বহির্বিভাগে রোগী ও রোগীর স্বজনদের দীর্ঘ লাইন। ঘণ্টার পর ঘণ্টা নারী কাউন্টারের রোগীরা লাইনে দাঁড়িয়ে আছেন টিকিটের জন্য। কিন্তু কাউন্টারের পেছনের জানালা দিয়ে ১০ টাকার পরিবর্তে বাড়তি টাকায় বিক্রি করা হচ্ছে টিকিট। কয়েকজন দালাল এই টিকিটগুলো সংগ্রহ করে রোগী ও স্বজনদের কাছে ৫০ টাকা করে বিক্রি করছেন।

তবে রামেক হাসপাতালের টিকিট ইনচার্জ নুর মোহাম্মদ টিকিটের এই বাণিজ্যের কথা স্বীকার করেন। তিনি বলেন, ‘এক শ্রেণির দালাল মেডিসিন বিভাগের শিশু ও নারীদের টিকিট কিছু বেশি দামে বিক্রি করছে। বিষয়টি হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে। তবে পুলিশের নজরদারি থাকলে দালালরা রোগীর স্বজন বেশে টিকিট নিয়ে সেগুলো আর বাইরে বিক্রি করতে পারবে না।’

উপরে