আমের স্বাস্থ্য উপকারিতা

আমের স্বাস্থ্য উপকারিতা

প্রকাশিত: 15-06-2019, সময়: 18:06 |
Share This

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : বাজারে হাত বাড়ালেই পাওয়া যাচ্ছে পাকা আম। আম পাকা বা কাঁচা যাই খান কেন, আমের রয়েছে নানাবিধ পুষ্টিগুণ। জনপ্রিয়তা ও স্বাদে অন্য ফল থেকে এগিয়ে থাকে আম। কাঁচা আম দিয়ে আমরা সাধারণ আম-তেল, আম ডাল, আমের আচার তৈরি করে খেয়ে থাকি। এছাড়া পাকা আম হলে তো কথাই নেই। আমের গুণের কথা আমাদের অনেকেরই অজানা। পেট, ত্বক ও চুলের যত্নে আমের জুড়ি নেই।

পুষ্টিবিদদের মতে, আমের শাঁস থেকে আঁটি পুরোটাতেই রয়েছে নানাবিধ উপকারিতা। আম খেলে শরীরের অতিরিক্ত মেদ কমে। এছাড়া হজমশক্তি বৃদ্ধিতে সাহায্য করে এই ফল। তাহলে জেনে নেওয়া যাক আম খেলে যেসব স্বাস্থ্য উপকারিতা পাওয়া যায়।

১. আমে রয়েছে উচ্চ পরিমাণে ভিটামিন সি ও ফাইবার। যা রক্তে উপস্থিত খারাপ কোলেস্টরলের মাত্রা কমায়। তাই প্রতিদিন পরিমান মত আম খেতে পারেন।

২.আম শরীরের প্রোটিন অণুগুলো ভেঙে ফেলতে সাহায্য করে। ফলে হজমশক্তি বৃদ্ধিতে সাহায্য করে।

৩. আমের আঁশে থাকা ভিটামিন সি ত্বকের উজ্জ্বলতা বাড়ায়। আম বাটা মাখলেও ত্বকে রোমের মুখগুলো খুলে গিয়ে ত্বক পরিষ্কার থাকে।

৪. শরীরে প্রয়োজনীয় ভিটামিন ‘এ’-এর চাহিদার প্রায় পঁচিশ শতাংশের যোগান দিতে পারে আম। তাই আম চোখের জন্যও উপকারী। ভিটামিন এ চোখের দৃষ্টিশক্তি বৃদ্ধি এবং রাতকানা রোগ থেকে রক্ষা করে।

৫. আমে রয়েছে প্রায় ২৫ রকমের বিভিন্ন কেরাটিনোইডস। তাই আম খেলে আপনার ইমিউন সিস্টেমকে রাখবে সুস্থ ও সবল।

৬. আমের শাঁস থেকে আঁটি পুরোটাই বেশ উপকারী। আমে রয়েছে টারটারিক অ্যাসিড, ম্যালিক অ্যাসিড ও সাইট্রিক অ্যাসিড। যা শরীরের ক্ষার ধরে রাখতে সাহায্য করে।

৭. আমের থাকা অ্যান্টিঅক্সিড্যান্ট ক্যানসার প্রতিরোধে সাহায্য করে।

৮. অপুষ্টিতে ভুগলে এই গরমে প্রতিদিন একটি করে আম খেতে পারেন। শরীরে শক্তি জোগান দিতে আমের জুড়ি নেই।

ক্রাইস্টচার্চে মসজিদে হামলাকারী নিজেকে ‘নির্দোষ’ দাবী করেছে
আন্তর্জাতিক ডেস্ক : নিজেকে নির্দোষ দাবী করেছে নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে মসজিদে হামলাকারী।

ব্রেন্টন হ্যারিসন টারান্টের বিরুদ্ধে আদালতে ৫১জন মানুষকে হত্যা, ৪০ জন মানুষকে হত্যার চেষ্টা এবং সন্ত্রাসী কর্মকাণ্ডের একটি অভিযোগসহ মোট ৯২টি অভিযোগ আনা হয়েছে। ক্রাইস্টচার্চ কারাগার থেকে ভিডিও লিঙ্কের মাধ্যমে হাইকোর্টে হাজিরা দেয় টারান্ট।

এ বছরের ১৫ই মার্চ শুক্রবার জুমার নামাজ চলার সময় চালানো ঐ হামলায় পাঁচজন বাংলাদেশি নিহত হয়েছিলেন। নিউজিল্যান্ডে এই প্রথম কারো বিরুদ্ধে সন্ত্রাসবাদে জড়িত থাকার অভিযোগ আনা হলো।

উপরে