চারঘাটে পেঁয়াজের দামে আগুন, ক্ষুব্ধ ভোক্তারা

চারঘাটে পেঁয়াজের দামে আগুন, ক্ষুব্ধ ভোক্তারা

প্রকাশিত: ২৮-০৯-২০১৯, সময়: ১৯:৩৮ |
Share This

নজরুল ইসলাম বাচ্চু, চারঘাট : রাজশাহীর চারঘাট উপজেলার হাটবাজার গুলোতে হঠাৎ করেই পেঁয়াজের অগ্নিমূল্যে ক্ষোভ বাড়ছে জনজীবনে। সপ্তাহখানেক আগেও যেখানে পেঁয়াজের কেজি ছিল ৪০-৪৫ টাকা, এখন তা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৭৫-৮০ টাকা। এমন পরিস্থিতি বিরাজ করলেও বাজারের নেয় মনিটরিং। ফলে বাজারের ব্যবসায়ীরা তাদের ইচ্ছামত নিচ্ছেন দাম।

চারঘাট উপজেলা সদরের খুচরা বাজারে প্রতিদিনের কেনাকাটা করেন লাবনী ইয়াসমিন। এক সপ্তাহ আগে তার বাজারের তালিকায় যেসব পণ্য ছিল সেগুলোর দাম কিছুটা অপরিবর্তিত থাকলেও দাম বেড়েছে পেঁয়াজের। আর সেই দাম দ্বিগুণের সমান। তাই অনেকটাই ক্ষুব্ধ লাবনী। উপজেলার সারদা বাজারে আওয়াল সরকার নামের একজন ক্রেতা বলছিলেন কম দামে পেঁয়াজ কিনতে পারবেন এই আশায় এর আগেও কয়েকটি বাজার ঘুরেছেন। তবে সবখানে একই রকম দাম। প্রতি কেজি ৮০ টাকা দরে পেঁয়াজ কেনা তার পক্ষে সম্ভব নয় বলে তিনি জানাচ্ছিলেন।

উপজেলার প্রায় সব বাজারগুলোতে গত এক সপ্তাহে পেঁয়াজের দাম দ্বিগুণ বেড়ে এখন প্রতি কেজি ৭৫ থেকে ৮০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। দাম বাড়ার কারণ হিসেবে খুচরা এবং পাইকারি বাজারের দোকানদাররা এর উৎপাদন ও সরবরাহের ঘাটতিকেই দায়ী বলে মনে করছেন। পেয়াজ ছাড়াও অসাভাবিক ভাবে বেড়েছে বেগুন ও পটলের দাম। গত এক সপ্তাহের ব্যবধানে বেগুনের দাম বেড়ে দাড়িয়েছে ৫৫ টাকা। যা গত সপ্তাহে ছিল ৩০ টাকা। পটল গত সপ্তাহে ছিল ২০ টাকা, এখন বেড়ে দাড়িয়েছে ৩৫ টাকা। করলা গত সপ্তাহে ছিল ৩০ টাকা, এখন বেড়ে দাড়িয়েছে ৫৫ টাকা। এভাবে বাজারের নিত্যপন্যের দাম বৃদ্ধি পাওয়ায় ক্রেদাদের মধ্যে বিরাজ করছে ক্ষোভ।

উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ¦ ফকরুল ইসলাম জানান, পেয়াজের দাম সারা বাংলাদেশেই বেড়েছে। তবে বাজারে মনিটরিং করা হচ্ছে। কোন ভাবেই কৃত্তিম সংকট উপায়ে বাজারে পন্যের দাম বৃদ্ধি করা মেনে নেয়া হবেনা। তার পরেও কোন ব্যবসায়ী যদি কোন পন্যের দাম বেশী নেন তাদের চিহিৃত করে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

Leave a comment

উপরে