‘বিনিয়োগে সিদ্ধান্ত নিতে ব্যর্থ হলে সরকার দায়ী নয়’

‘বিনিয়োগে সিদ্ধান্ত নিতে ব্যর্থ হলে সরকার দায়ী নয়’

প্রকাশিত: ০৭-১০-২০১৮, সময়: ১৩:২৯ |
Share This

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত বলেছেন, বাংলাদেশের পুঁজিবাজারে সিংহভাগ বিনিয়োগকারী হচ্ছে রিটেইল ইনভেস্টর, যাদের অনেকেরই বিচার-বিশ্লেষণ করে বিনিয়োগের সিদ্ধান্ত নেওয়ার ক্ষমতা নেই। যার ফলে তারা অনেক সময় ক্ষতির সম্মুখীন হন। তাই বিনিয়োগের শিক্ষাই বিনিয়োগকারীদের সুরক্ষা দিতে পারে বলে মন্তব্য করেন তিনি।

রোববার বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন তিনি। রাজধানীর কৃষিবিদ ইনস্টিটিউটে বিশ্ব বিনিয়োগকারী সপ্তাহ উপলক্ষে এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

অর্থমন্ত্রী বলেন, তবে এটাও খেয়াল রাখা উচিত, কোনো বিনিয়োগকারী কোথায়, কখন, কীভাবে, কি পরিমাণে বিনিয়োগ করবেন, সে সিদ্ধান্ত তার নিজের। বিনিয়োগ সংশ্লিষ্ট ঝুঁকি না বুঝে সঠিক বিনিয়োগ সিদ্ধান্ত গ্রহণে ব্যর্থতার কারণে কোনো বিনিয়োগকারী ক্ষতিগ্রস্থ হলে তা থেকে সুরক্ষার ব্যবস্থা করা নিয়ন্ত্রক সংস্থা বা সরকারের পক্ষে সম্ভব নয়।

অর্থমন্ত্রী বলেন, পুঁজিবাজার নিয়ন্ত্রনকারী সংস্থার দায়িত্ব হচ্ছে বিনিয়োগকারীদের স্বার্থ সংরক্ষণ করা। সব ধরনের বিনিয়োগেই ঝুঁকি আছে বিধায় বিনিয়োগে সতর্কতা অবলম্বন করা উচিত। তাছাড়া সব ধরনের বিনিয়োগের জন্য সবাই উপযুক্ত নয় বলেও মন্তব্য করেন অর্থমন্ত্রী।

অর্থমন্ত্রী এসময় বলেন, বিনিয়োগকারী যদি তার অর্থিক অবস্থার মঙ্গে সঙ্গতিপূর্ণ বিনিয়োগ সিদ্ধান্ত গ্রহণে ব্যর্থ হন তবে তার বিনিয়োগ ঝুঁকি আরো বাড়তে পারে। তাই আইন কানুন প্রনয়নের পাশাপাশি যথাযথ নজরদারির মাধ্যমে পুঁজিবাজারে কার্যকর নিয়ন্ত্রন প্রতিষ্ঠা করা উচিত।

বিনিয়োগের স্বার্থ সংরক্ষণ ও সুরক্ষার জন্য যথাযথ আইনি কাঠামো প্রনয়ন ও তা প্রতিপালন নিশ্চিত করা, প্রাতিষ্ঠানিক সুশাসন প্রতিষ্ঠা করা, বিনিয়োগ সংক্রান্ত ঝুঁকি ও অন্যান্য সব তথ্য যথাযথভাবে প্রকাশ নিশ্চিত করা, উপযুক্ত বিনিয়োগ পন্যের ইস্যু তদারকি করা, বিনিয়োগকারীতের অধিকার নিশ্চিক করা, স্বার্থ সংঘাত ও অযাচিত প্রভাব দূরীকরনে ব্যবস্থা করা, অভিযোগগুলো দ্রুত নিষ্পত্তি করা, পুঁজিবাজারে সার্বক্ষনিক নজরদারির ব্যবস্খা করা, অনিয়ম জালিয়াতি প্রতিরোধ করা, কোনো ধরণের ব্যত্যয় পরিলক্ষিত হলে তা দূর করা ও যথাযথ শাস্তির ব্যবস্থা গ্রহণের জন্যও আহবান জানান অর্থমন্ত্রী।

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশনের নির্বাহী পরিচালক মাহবুবুল আলম।

Leave a comment

আরও খবর

  • দুই বিনিয়ন ডলার ঋণ দেবে বিশ্বব্যাংক : অর্থমন্ত্রী
  • ছয় ব্যাংক ও দুটি আর্থিক প্রতিষ্ঠানে ১২২৯ জনকে নিয়োগ
  • ৮০ কোটি টাকা প্রণোদনা পাবেন ৭ লাখ কৃষক
  • ‘বিনিয়োগে সিদ্ধান্ত নিতে ব্যর্থ হলে সরকার দায়ী নয়’
  • তিন প্রকল্পে ৪৩০০ কোটি টাকা দিচ্ছে বিশ্বব্যাংক
  • ভারতীয় রুপির সমান হচ্ছে বাংলাদেশি টাকার মান!
  • নতুন অর্থ বছরে চমকপ্রদ প্রবৃদ্ধি রেমিটেন্স খাতে
  • বিশ্বব্যাংকের নিষেধাজ্ঞা তালিকায় বাংলাদেশে কর্মরত ১৪ প্রতিষ্ঠান
  • বিশ্বসেরা দ্রুত বর্ধনশীল অর্থনীতির দেশ হবে বাংলাদেশ
  • পাট থেকে পলিথিন ব্যাগের যাত্রা শুরু
  • ৭ শতাংশ প্রবৃদ্ধির পূর্বাভাস বিশ্বব্যাংকের
  • শিবগঞ্জে অর্থনৈতিক উন্নয়নের লক্ষে মতবিনিময়
  • সরকারি কর্মকর্তাদের গৃহঋণ দেবে চার ব্যাংক
  • নির্বাচন পরিস্থিতি অর্থনীতিতে কোন প্রভাব ফেলবে না: অর্থমন্ত্রী
  • সরকার পরিবর্তনেও অর্থনৈতিক অগ্রযাত্রায় প্রভাব পড়বে না : মুহিত


  • উপরে