চাঁপাইনবাবগঞ্জে দুই জঙ্গির ১০ বছর জেল

চাঁপাইনবাবগঞ্জে দুই জঙ্গির ১০ বছর জেল

প্রকাশিত: ০১-১২-২০১৯, সময়: ২২:১১ |
Share This

নিজস্ব প্রতিবেদক, চাঁপাইনবাববগঞ্জ : চাঁপাইনবাবগঞ্জে অস্ত্র ও সন্ত্রাসবিরোধি আইনে দায়েরকৃত একটি মামলায় নিষিদ্ধ ঘোষিত জঙ্গি সংগঠন জামায়েতুল মুজাহেদিন বাংলাদেশ-জেএমবি’র দুই সদস্যের প্রত্যেককে ১০ বছর করে কারাদন্ডের আদেশ দিয়েছে আদালত। সেই সাথে তাদের ১০ হাজার টাকা করে অর্থদন্ড অনাদায়ে আরও ৬ মাস করে কারাদন্ডের আদেশও দেয়া হয়েছে। রোববার দুপুরে চাঁপাইনবাবগঞ্জ অতিরিক্ত দায়রা জজ শওকত আলী আসামীদের উপস্থিতিতে দন্ডাদেশ ঘোষণা করেন।

দন্ডিতরা হলেন, চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ উপজেলার কয়লার দিয়াড় সন্যাসী গ্রামের আজমল হকের ছেলে আব্দুল মনির (৩৫) ও একই উপজেলার পুকুরিয়া শামজোলা গ্রামের আকতার হোসেনের ছেলে আব্দুর রাকিব ওরফে সুমন (৩৮)।

মামলার বরাত দিয়ে রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী আঞ্জুমান আরা জানান, ২০০৯ সালের ১৭ জুন দিবাগত রাতে পুলিশ অভিযানে নিজ বসতবাড়ি থেকে ১টি ওয়ান শ্যুটার গান ও ৩ রাউন্ড রাইফেলের গুলিসহ গ্রেফতার হন দন্ডিত আব্দুল মনির। তাকে অন্য একটি মামলায় পূর্বেই গ্রেফতার দন্ডিত আব্দুর রাকিব ওরফে সুমনের স্বীকারোক্তিতে পাওয়া তথ্যের ভিত্তিতে গ্রেফতার করা হয়।

এ ঘটনায় ২০০৯ সালের ১৮ জুন শিবগঞ্জ থানায় মামলা করেন থানার তৎকালীন উপপরিদর্শক মিজানুর রহমান। বেআইনি অস্ত্র নিজ দখলে রেখে নিষিদ্ধ জেএমবি’র সদস্য হিসেবে সন্ত্রাসী কর্মকান্ডের জন্য গোপনে সংঘবদ্ধ হবার অপরাধে মামলাটি দায়ের করা হয়।

মামলার প্রথম তদন্ত কর্মকর্তা ও শিবগঞ্জ থানার তৎকালীন উপপরিদর্শক ছিদ্দিকুর রহমান ২০০৯ সালের ৮ জুলাই আদালতে দন্ডিত দুজনকে অভিযুক্ত করে চার্যশীট দাখিল করেন। ২০১৬ সালের ৩০ মার্চ শিবগঞ্জ থানার তৎকালীন উপপরিদর্শক নুরে আলম সিদ্দিকী আদালতে সন্ত্রাস দমন আইনে সম্পুরক চার্যশীট দাখিল করেন।

আসামী আব্দুর মনিরের স্বীকারোক্তিমুলক জবানবন্দী, ৭ জনের সাক্ষ্য, প্রমাণ ও শুনানীর পর আদালত রোববার অভিযুক্ত দুজনকেই দোষি সাব্যস্ত করে রায় ঘোষণা করেন। আসামী পক্ষে মামলা পরিচালনা করেন এড. মোল্লা ওমর শরিফ।

উপরে