রাজশাহীতে বিএনপির ৩ কর্মীর জেল

রাজশাহীতে বিএনপির ৩ কর্মীর জেল

প্রকাশিত: ১১-০৯-২০১৯, সময়: ২২:৪২ |
Share This

নিজস্ব প্রতিবেদক : রাজশাহীর চারঘাটে মিনারুল ইসলাম নামে এক আওয়ামী লীগ কর্মীর চোখ উপড়ে ফেলার মামলায় তিন বিএনপি কর্মীর বিভিন্ন মেয়াদে কারাদণ্ড ও জরিমানা করেছেন আদালত। বুধবার দুপুরে রাজশাহীর চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক মেহেদী হাসান তালুকদার এ রায় দেন।

দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন- চারঘাট উপজেলার শাহিন, ফারুক ও মানিক। রায়ে শাহিনকে পাঁচ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড এবং পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও ১৫ দিনের বিনাশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করা হয়। আর ফারুক ও মানিককে ছয় মাসের কারাদণ্ড ও ৫০০ টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও ৭ দিনের কারাদণ্ড প্রদান করা হয়।

আদালত সূত্র জানায়, ২০১৩ সালের ২৯ অক্টোবর বিএনপি ও জামায়াতের ডাকা হরতাল কর্মসূচির সময় আসামি শাহিন ও ১৬ জন বিএনপি-জামায়াত কর্মীসহ অজ্ঞাতনামা বেশ কয়েকজন ব্যক্তি বামনদীঘি বাজারে আওয়ামী লীগকে উদ্দেশ্য করে অশ্লীল ভাষায় গালিগালাজ করতে থাকেন। আওয়ামী লীগ কর্মী মিনারুল ওই বাজারে ঢুকলেই আসামিরা চারদিক থেকে ঘিরে মারধর করতে থাকে।

এ সময় আসামি শাহিন ধারালো রামদা দিয়ে মিনারুলের কপালে আঘাত করলে মিনারুলের একটি চোখ নষ্ট হয়ে যায়। মিনারুলকে আশেপাশের লোকজন প্রথমে চারঘাট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ও পরবর্তীতে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে ভর্তি করে। পরে ইনফেকশন হওয়ার শঙ্কায় তার ওই চোখ তুলে ফেলতে হয়। এ ঘটনায় শাহিনসহ বিএনপি-জামায়াতের ১৬ জনের বিরুদ্ধে চারঘাট মডেল থানায় মামলা দায়ের করা হয়। তদন্ত শেষে ২০১৪ সালের ২৮ মে মামলাটিতে আসামি শাহিনসহ ১৬ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র দাখিল করে পুলিশ।

চিকিৎসক ও তদন্তকারী কর্মকর্তাসহ ১০ জনের সাক্ষ্য গ্রহণ শেষে আদালতের বিচারক এ রায় ঘোষণা করেন। রায় ঘোষণার সময় সাজাপ্রাপ্ত আসামিরা আদালতে উপস্থিত ছিলেন। তাদেরকে সাজা ভোগের জন্য জেলা কারাগারে পাঠানো হয়।

মামলাটির রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী ছিলেন আহসান হাবিব রঞ্জু এবং আসামিপক্ষে মামলাটি পরিচালনা করেন অ্যাডভোকেট হযরত আলী

Leave a comment

উপরে