ব্যারিস্টার মইনুলের জামিন নামঞ্জুর

ব্যারিস্টার মইনুলের জামিন নামঞ্জুর

প্রকাশিত: ০৫-১১-২০১৮, সময়: ১৬:৫৮ |
Share This

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : সাংবাদিক মাসুদা ভাট্টিকে মানহানিকর বক্তব্য দেওয়ার অভিযোগে ব্যারিস্টার মইনুল হোসেনের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে দায়ের করা মামলায় জামিনের আবেদন নামঞ্জুর করেছেন আদালত।

সোমবার দুপুরে ঢাকা মহানগর হাকিম বাকী বিল্লাহ উভয় পক্ষের শুনানি শেষে এ আদেশ দেন। ব্যারিস্টার মইনুল হোসেনের পক্ষে জামিনের শুনানি করেন অ্যাডভোকেট সানাউল্লাহ মিয়া ও সৈয়দ জয়নাল আবেদিন মেজবাহ। তাদের সঙ্গে আরও একাধিক আইনজীবী ছিলেন। শুনানিতে সানাউল্লাহ মিয়া বলেন, ‘মামালটি জামিনযোগ্য ধারা। আজকে এ মামলায় যিনি বাদী, তার বিরুদ্ধে কোনও অভিযোগ নেই। তিনি (বাদী) কেন মামলা করলেন? তিনি (মইনুল হোসেন) মাসুদা ভাট্টিকে নিয়ে কী বলেছেন, এটা সমগ্র জাতি জানে। ওইখানে বাদীকে কিছু বলা হয়নি। যাকে বলেছেন তিনি (মাসুদা) একটি মামলা করেছেন। মামলাটি জামিনযোগ্য ধারা, আমরা আসামির জামিন চাই।’

রাষ্ট্রপক্ষে ব্যারিস্টার মইনুলের জামিনের বিরোধিতা করেন ঢাকা মহানগর আদালতের পাবলিক প্রসিকিউটর আবু আব্দুল্লাহ। তিনি বলেন, ‘একজন সাংবাদিককে উদ্দেশ করে কুরুচিপূর্ণ বক্তব্য দেওয়া খুবই লজ্জাজনক। আমাদের জামিনের আপত্তি আছে।’ উভয় পক্ষের শুনানি শেষে বিচারক জামিনের আবেদন নাকচ করেন।

গত ১ নভেম্বর মামলার তদন্ত কর্মকর্তার আবেদনের পর ব্যারিস্টার মইনুল হোসেনকে গ্রেপ্তার দেখান ঢাকা মহানগর হাকিমের আদালত এবং মামলার প্রতিবেদনের জন্য আগামী ২৯ নভেম্বর দিন ধার্য করেন।

এর আগে গত ২৪ অক্টোবর ঢাকার সাইবার ট্রাইব্যুনালের বিচারক মো. আস সামছ জগলুল হোসেনের আদালতে আ. লীগ যুব ও ক্রীড়া উপ-কমিটির সদস্য সুমনা আক্তার লিলি মামলাটি দায়ের করেন। পরে আদালত বাদীর জবানবন্দি গ্রহণ করে গুলশান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে এজাহার গ্রহণ করার নির্দেশ দেন।

মামলায় অভিযোগ থেকে জানা যায়, গত ১৬ অক্টোবর রাতে বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল ৭১-এ প্রচারিত মিথিলা ফারজানা সঞ্চালিত টক শো ‘৭১ জার্নাল’ চলাকালে মাসুদা ভাট্টি ব্যারিস্টার মইনুল হোসেনকে প্রশ্ন করেন, ‘জাতীয় ঐক্যফ্রন্টে আপনি যে হিসেবে উপস্থিত থাকেন, আপনি বলেছেন, একজন নাগরিক হিসেবে উপস্থিত থাকেন। কিন্তু সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অনেকে বলেন, আপনি জামায়াতের প্রতিনিধি হিসেবে উপস্থিত থাকেন।’

মাসুদা ভাট্টির এই কথার জবাবে মইনুল হোসেন বলেন, ‘আপনার দুঃসাহসের জন্য আপনাকে ধন্যবাদ দিচ্ছি। আপনাকে আমি চরিত্রহীন বলে মনে করতে চাই।’ একজন নারীর প্রতি ব্যারিস্টার মইনুল হোসেনের এমন ইচ্ছাকৃত ধারাবাহিক কুৎসা রটনা ও আক্রমণাত্মক বক্তব্য মাসুদা ভাট্টি ও নারী জাতির প্রতি বিরক্তিকর, অপমানজনক, অপদস্থমূলক এবং হেয় প্রতিপন্নকর বলে বাদী মনে করেন। প্রকাশ্যে এ ধরনের বক্তব্য প্রকাশ করা মাসুদা ভাট্টি তথা নারী জাতির জন্য সম্মানহানির। বিষয়টি নিরসনকল্পে কারণে মইনুল হোসেন প্রকাশ্যে কোনোরূপ ক্ষমা প্রার্থণা কিংবা দুঃখ প্রকাশ করেননি।

আরও খবর

  • ‘বিএনপি-জামায়াতের জন্যই গণহত্যার স্বীকৃতি মেলেনি’
  • ‘স্বাধীনতার সুফল পেতে শুরু করেছে দেশবাসী’
  • স্বাধীনতা দিবসের অনুষ্ঠানে হামলা, ২০ শিক্ষার্থী আহত
  • ফুল দিয়ে ফেরার পথে বিএনপি নেতাদের ওপর হামলা
  • স্বাধীনতা দিবসে বিএসএফের জন্য বিজিবির মিষ্টি
  • শিশুরাই উন্নত সোনার বাংলা গড়বে : প্রধানমন্ত্রী
  • পিছিয়ে যাচ্ছে ৪০তম বিসিএস প্রিলির তারিখ
  • স্বাধীনতা দিবসে মেয়র লিটনের নেতৃত্বে বর্ণাঢ্য মিছিল
  • ফতুল্লায় ডাইং কারখানায় ভয়াবহ কেমিক্যাল বিস্ফোরণ
  • রাজশাহীতে স্বাধীনতা দিবস উদযাপন
  • জাতীয় স্মৃতিসৌধে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা
  • স্বাধীনতা দিবসে সড়কে প্রাণ গেল ২ স্কুলছাত্রীর
  • আজ মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস
  • মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের অধ্যক্ষসহ ১৪ জনকে দুদকে তলব
  • গণহত্যার আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি দাবিতে রাজশাহীতে মোমবাতি প্রজ্জ্বলন



  • উপরে