‘দলবল দেখে আমরা আদেশ দেই না’

‘দলবল দেখে আমরা আদেশ দেই না’

প্রকাশিত: ১৬-০৫-২০১৮, সময়: ১৩:১৮ |
Share This

পদ্মাটাইমস ডেস্ক : বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার জামিন বহালের সংক্ষিপ্ত আদেশ চেয়ে তার আইনজীবীর আবেদন নাকচ করে দিয়েছেন আপিল বিভাগ। আদালত বলেছেন, সংক্ষিপ্ত আদেশ দেওয়ার বিধান আপিল বিভাগের রুলসে নেই। তবে তাড়াতাড়ি জামিনের রায় প্রকাশ করা হবে বলে আদালত বলেন। বুধবার বেলা সাড়ে ১১টায় প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেনের নেতৃত্বাধীন ৪ বিচারপতির আপিল বেঞ্চ এই আদেশ দেন।

আপিল বিভাগের বিরতির পর বেলা সাড়ে ১১টায় আদালতের কার্যক্রম শুরু হলে খালেদা জিয়ার আইনজীবী এ জে মোহাম্মদ আলী বলেন, আমরা খালেদা জিয়ার জামিনের সংক্ষিপ্ত আদেশ চাচ্ছি। বেল বন্ড দাখিল করার জন্য করার জন্য সংক্ষিপ্ত আদেশ দরকার। আপনাদের আজকের রায় পত্র-পত্রিকায়, টিভিতে প্রচারিত হয়েছে। হয়তো আপনাদের নিজস্ব ওয়েবসাইটে প্রকাশিত হবে। আমাদের দিতে অসুবিধা নেই।

তখন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম আপত্তি জানিয়ে বলেন, খালেদা জিয়া তো আরো কয়েকটি মামলায় শ্যেন এরেস্ট আছেন। তাছাড়া আপিল বিভাগ থেকে এ ধরনের শর্ট অর্ডার দেওয়ার নজির নেই।

বিচারপতি মোহাম্মদ ইমান আলী বলেন, এ ধরনের শর্ট অর্ডার দেওয়ার নজির নেই। তখন প্রধান বিচারপতি খালেদার আইনজীবীকে বলেন, আপনার আবেদন রিফিউজ করা হলো। এ জে মোহাম্মদ আলী বলেন, হাইকোর্ট বিভাগের রুলসে শর্ট অর্ডার দেওয়ার বিধান আছে।

বিচারপতি মোহাম্মদ ইমান আলী বলেন, হাইকোর্টের বিধান কি আমাদের জন্য মানা বাধ্যতামূলক? আইনজীবী এ জে মোহাম্মদ আলী বলেন, আমি তা বলছি না। আপনারা চাইলে তা দিতে পারেন।

প্রধান বিচারপতি আবার বলেন, আপনার আবেদন রিফিউজ করা হলো। আইনজীবী এ জে মোহাম্মদ আলী বলেন, আমি তো একা এসেছি। দলবল নিয়ে আসিনি। প্রধান বিচারপতি বলেন, এটা কেমন কথা? দলবল নিয়ে আসলেই কি আমরা আদেশ দিয়ে দেই? দলবল দেখে আমরা আদেশ দেই না।

বেঞ্চের অপর বিচারপতি মির্জা হোসেইন হায়দার এ জে মোহাম্মদ আলীর মন্তব্যে উষ্মা প্রকাশ করে বলেন, আপনি গুরুতর আপত্তিকর কথা বলেছেন। আপনি আমাদের ফোর্স করতে পারেন না। আপনারা ভুলে যান যে কোর্টে আপনারা আইনজীবী। অফিসার অব দ্য কোর্ট। কোনো দলের লোক নন।

তখন এ জে মোহাম্মদ আলী তার মন্তব্যের জন্য আদালতের কাছে দুঃখ প্রকাশ করেন। এ পর্যায়ে বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকী এ জে মোহাম্মদ আলীকে বলেন, প্রধান বিচারপতি যেখানে নাকচ করে দিয়েছেন সেখানে আপনি তর্ক করছেন কেন?

শেষে প্রধান বিচারপতি বলেন, আপনার আবেদন আমরা বিবেচনা করতে পারলাম না। বিবেচনা করার সুযোগ নেই।

Leave a comment

আরও খবর

  • পবায় নৌকার পক্ষে আ.লীগ নেতা আসাদের গণসংযোগ
  • রাজশাহীর পিডিবির পরিত্যক্ত কোয়াটারে মদকসেবীদের আড্ডা
  • রাজশাহী ফুডিস ফেসবুক পেজ খুলে অর্থ আত্নসাত ও প্রতারণার অভিযোগ
  • তানোরে স্ত্রীকে হত্যা করে স্বামীর আত্মহত্যার চেষ্টা
  • দেশজুড়ে মাদকবিরোধী অভিযানে গোলাগুলিতে নিহত আরও ১১
  • রাজশাহীতে ব্যানার টাঙ্গানো নিয়ে উত্তেজনা
  • সিরাজগঞ্জে বজ্রপাতে কৃষকের মৃত্যু
  • বড়াইগ্রামে বিল থেকে যুবকের লাশ উদ্ধার
  • ডাক্তার সংকটে শিবগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে, চিকিৎসা সেবা ব্যাহত
  • নাটোরে ২ জেএমবি সদস্য গ্রেপ্তার
  • সৌদি আরবে বিমান দুর্ঘটনায় বাঁচলেন ১৫১ বাংলাদেশি
  • বিষধর সাপের কান্ড, পল্লী বিদ্যুতের গ্রীড লাইন লন্ডভন্ড
  • রাজশাহীতে ছুরিকাঘাতে পুলিশের গাড়ি চালক নিহত
  • দেশের উন্নয়নে নারীদের সবচেয়ে বেশি এগিয়ে আসতে হবে : লিটন
  • রাজশাহীতে সতের প্রতিষ্ঠানের এক লাখ ৩৯ হাজার টাকা জরিমানা


  • উপরে