ধামইরহাটে ৪ বিঘা জমির রবিশষ্য নিধন, ২ লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি

ধামইরহাটে ৪ বিঘা জমির রবিশষ্য নিধন, ২ লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি

প্রকাশিত: ১২-১২-২০১৯, সময়: ১৯:০২ |
Share This

নিজস্ব প্রতিবেদক, ধামইরহাট : নওগাঁর ধামইরহাটে প্রকাশ্য দিবালোকে ফিল্মী কায়দায় ৪ বিঘা জমির রবিশস্য নিধন করেছে প্রতিপক্ষরা। একে জমির মালিকের প্রায় ২ লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি হয়েছে। সুবিচার প্রার্থনা করে ধামইরহাট থানায় মামলা দায়ের করেছে ভুক্তভোগী জমির মালিক ছালেকুল সরদার।

সরেজমিনে জানা যায়, উপজেলার বিকন্দখাস গ্রামে মৃত নয়েন উদ্দিন সরদারের ছেলে ছালেকুল ইসলাম গং জানান, তাদের ভোগদখলীয় জমিতে ২০/২৫ জনের দেশীয় সশস্ত্র বাহিনী নিয়ে ১১ ডিসেম্বর সকাল সাড়ে ৮ টার দিকে প্রতিপক্ষ ছয়ফুলের নির্দেশে বাশির-নজরুল গং ছালেকুল সরদারের ৩ বিঘা জমির সরিষা কেটে বিনষ্ট করে এবং ১ বিঘা জমির, আলু, পিয়াজ ও রসুণ নিধন করে। বাড়ীতে পুরুষ মানুষের অনুপস্থিতিতে প্রতিপক্ষগনের এমনকাজে বাধা দিলে গ্রামবাসীকেও অস্ত্র নিয়ে ধাওয়া করে।

বিকন্দখাস গ্রামের প্রবীন বাসিন্দা তছিমুদ্দিনের ছেলে নজিমুদ্দিন (৭০) জানান, ছালেকুল ইসলাম বাটোয়ারা মামলা সূত্রে ২০০৮ সালে আদালতের মাধ্যমে ৪ বিঘা জমি প্রাপ্ত হন, আদালত ঢোল বাজিয়ে এলাকায় ছালেকুলের বাবা নয়েন সরদারকে বুঝিয়ে দেন। কিন্তু প্রতিপক্ষরা প্রভাবশালী হওয়ায় দীর্ঘদিন তাদের দখলে বাধা দেয়। বর্তমানে গত বছর থেকে ছালেকুল সরদার এই জমিতে চাষাবাদ করে আসছে।

এ বিষয়ে অভিযুক্ত বাশির উদ্দিন সরিষা সহ রবিশষ্য নিধনের কথা অস্বীকার করে বলেন, জমিটি আমাদেরই, ওরাই এসব ঘটনা ঘটিয়েছে বলে কৌশলে সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের উল্টো জবাব প্রদান করেন।

এ বিষয়ে ধামইরহাট থানায় সদ্য যোগদানকৃত অফিসার ইনচার্জ শামীম হাসান সরদার বলেন, আমি গতকাল যোগদান করেছি, বাদীর লিখিত অভিযোগ হাতে পেয়েছি, জমি-জমা সংক্রান্ত এই ঘটনার সরেজমিন তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে, আগামীকাল সেখানে পুলিশ পাঠানো হবে।

উপরে