‘চাঁপাইনবাবগঞ্জে পর্যাপ্ত পরিমান লবন মজুদ আছে’

‘চাঁপাইনবাবগঞ্জে পর্যাপ্ত পরিমান লবন মজুদ আছে’

প্রকাশিত: ১৯-১১-২০১৯, সময়: ২০:২৫ |
Share This

নিজস্ব প্রতিবেদক, চাঁপাইনবাবগঞ্জ : চাঁপাইনবাবগঞ্জে মঙ্গলবার বিভিন্ন বাজার, হাট ও দোকানে লবন সঠিক দামে বিক্রির লক্ষে জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করা হয়েছে। ভ্রাম্যমান আদালত লবনের আড়ত ও পাইকারি বিক্রেতাদের গুজবের ব্যাপারে সতর্ক থাকার পরামর্শ দিয়েছেন। লবনের দাম বেশি নিলে দোকানদার বা বিক্রেতাকে আইনের আওতায় আনা হবে।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. আলমগীর হোসেন জানান, জেলায় লবনের মজুদ যা আছে, তাতে কমপক্ষে আগামী ছয় মাস চলবে। কেউ কোন গুজবে কান দেবেন না। লবন নিয়ে যদি কোন অসাধু ব্যবসায়ী কোন কারসাজি করে তাহলে তাকে সর্বোচ্চ শাস্তি পেতে হবে। ক্রেতাদের প্রয়োজনের বেশি লবন না কিনতেও আহবান জানান আলমগীর হোসেন।

ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, কারো কাছে কোন বিক্রেতা যদি লবণের দাম বেশি চায় তবে রশিদ নিতে বলা হয়েছে। এ ছাড়াও ভিডিও বা অডিও রেকর্ড করতে পরামর্শ দিয়েছে ভোক্তা অধিকার। কোন গুজবে কান দিয়ে অতিরিক্ত লবণ ক্রয় করা থেকে বিরত থাকতে আহবান জানিয়েছেন ভোক্তা অধিকার।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ ওসি জিয়াউর রহমান পিপিএম জানান, পুলিশ সুপার টি এম মোজাহিদুল ইসলাম বিপিএম পিপিএম এর নির্দেশনায় এলাকার বাজার ও লবনের দোকানে পুলিশ সর্বক্ষণ মনিটরিং করছে। সাধারণ ক্রেতাদের সচেতন ও লবনের অতিরিক্ত মূল্য না নিতে শহরে মাইকিং করা হচ্ছে।

লবন নিয়ে গুজবে কান না দিতে বা কেউ বেশি দামে লবন বিক্রি করলে ভোক্তা সাধারণকে অভিযোগ করতে চাঁপাইনবাবগঞ্জ জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর, রুম নং- ৩২১, জেলা প্রশাসকের কার্যালয় অথবা ০১৩১৮-৩৯৬৯৬৪ নম্বরে যোগাযোগ করতে
বলা হয়েছে।

উল্লেখ্য, চলতি মৌসুমে কক্সবাজার জেলায় রেকর্ড পরিমাণ লবণ উৎপাদিত হয়েছে। যার পরিমান ১৮ লাখ ২০০ মেট্রিক টন, যা গত ৫৮ বছরের মধ্যে সর্বোচ্চ।

Leave a comment

উপরে