সিংড়ায় এবার ‘লবন’ গুজব!

সিংড়ায় এবার ‘লবন’ গুজব!

প্রকাশিত: ১৯-১১-২০১৯, সময়: ১৬:০৪ |
Share This

নিজস্ব প্রতিবেদক, নাটোর : পেঁয়াজের পর নাটোরের সিংড়ায় এবার ‘লবন’-এর মুল্য বৃদ্ধি নিয়ে গুজব ছড়িয়ে পড়লে লবন কেনার হিড়িক পড়ে যায়। মঙ্গলবার সকাল থেকে মানুষ লবন কেনার জন্য দোকানে গিয়ে ভির করেন। এই সুযোগে এক শ্রেণীর অসাধু ব্যবসায়ী বেশি দামে লবন বিক্রি করে।

পরে স্থানীয় প্রশাসন বিভিন্ন হাট-বাজারে অভিযান চালিয়ে দুই ব্যবসায়ীকে জরিমানা করলে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়। তবে লবনের কারনে কাউকে জরিমানা করা হয়নি বলে জানান উপজেলা নির্বাহী অফিসার। বেশী দামে পণ্য বিক্রির দায়ে তাদের ১০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

এদিকে এই গুজবকে আমলে নেয়নি জেলা সদর সহ অন্য উপজেলার সাধারন মানুষ। এসব এলাকার অধিকাংশ মানুষ বিষয়টিকে গুজব বলে উড়িয়ে দিয়েছেন।

উপজেলা প্রশাসন ও স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, লবনের কেজি ২’শ টাকা হবে’ সিংড়ার বিভিন্ন হাটে-বাজারে এমন গুজব হঠাৎ করেই ছড়িয়ে পড়ে। মুহুর্তের মধ্যে ৩০টাকা কেজির লবন ৮০টাকায় বিক্রি করেন ব্যবসায়ী। স্থানীয় একটি সুত্র জানায় সোমবার রাতে বিভিন্ন ব্যবসায়ীর কাছে ফোন আসতে থাকে লবন ২শ টাকা কেজি হবে। এমন গুজবে মঙ্গলবার সকাল থেকেই সব বয়সের নারী পুরুষ বিভিন্ন দোকানে গিয়ে বেশী বেশী লবন কিনে মজুদ করেন। ফলে মুহুর্তের মধ্যে লবনের দাম বেড়ে যায়। ৩০টাকা কেজি লবনের দাম বেড়ে দাঁড়ায় ৮০ টাকায়।

স্থানীয়রা জানান, এক শ্রেণীর অসাধু ব্যবসায়ী পেঁয়াজের পর লবন নিয়ে গুজব ছড়িয়ে ফায়দা লুটার চেস্টা করছে। গুজবের কারনে সিংড়া উপজেলার জামতলী, বামিহাল, শেরকোল এলাকায় ৩০টাকার লবন ৮০ টাকায় বিক্রি হয়।

উপজেলার বামিহাল এলাকার ফরিদ হোসেন জানান, লবনের দাম বৃদ্ধি নিয়ে হঠাৎ করে গুজব ছড়ানো হয়। গুজবে গ্রামের সাধারণ মানুষ লবন কিনতে বিভিন্ন হাটে-বাজারে গিয়ে ভির করেন। ১৫/ ১৬টাকা কেজির খোলা লবন মুহুর্তের মধ্যে ৩৫ থেকে ৫০টাকায় বিক্রি শুরু হয়।

সিংড়া সদরের জাফর হোসেন বলেন, লবনের দাম বৃদ্ধির গুজব তুলে এক শ্রেণীর অসাধু ব্যবসায়ী অতিরিক্ত টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে। লবনের দাম বৃদ্ধির কথা শুনে শত শত মানুষ সিংড়া বাজারে লবন কিনতে ভিড় করে। এসময় মুহুর্তের মধ্যে লবনের দাম দ্বিগুণ হয়ে যায়। একজনের এককেজি লবনের প্রয়োজন হলেও গুজবে সে বেশী বেশী লবন কিনে নিয়ে যায়।

এদিকে এ খবর ছড়িয়ে পড়ার পর সিংড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার ( ইউএনও ) সুশান্ত কুমার মাহাতো, স্থানীয় কাউন্সিলর ও প্রশাসনের অন্য কর্মকর্তারা বাজারে ছুটে যান। বাজারে গিয়ে বিষয়টি গুজব বলে সকলকে সচেতন হওয়ার পরামর্শ দেন তারা।

পরে ইউএনও নেতৃত্বে একটি টিম উপজেলার বিভিন্ন হাট- বাজারে যান এবং স্থানীয়দের নিয়ে সচেতনতামুলক সভা করেন। অভিযান কালে দুটি বাজারের দুইজন ব্যবসায়ীকে ৫ হাজার টাকা করে জরিমানা করেন। এরমধ্যে সিংড়া বাজারের সুশীল সাহা নামে এক ব্যবসায়ীকে বেশী দামে লবন বিক্রির জন্য ৫হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। তবে এই গুজবের প্রভাব পড়েনি নাটোর শহরের বিভিন্ন বাজারে।

ব্যবসায়ীদের সাথে কথা বলে জানা যায়, লবনের দাম এক টাকাও বাড়েনি। এছাড়া জেলার অন্য উপজেলাতে লবনের দাম স্বাভাবিক রয়েছে। এটি গুজব ছাড়া কিছুই নয়।

সিংড়া উপজেলার নির্বাহী অফিসার সুশান্ত কুমার মাহাতো বলেন, একটি চক্র গুজব ছড়িয়ে বেশি দামে লবন বিক্রি করার পায়তারা করে। বিষয়টি জানার পর পরই সকলকে সাথে নিয়ে বিভিন্ন বাজারে অভিযান পরিচালনা করায় তাদের সেই চেষ্টা ব্যর্থ হয়ে যায়। একই সাথে গুজবে কান না দিতে এলাকার মানুষদের সচেতন করার জন্য উপজেলার ১২টি ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যানদের নির্দেশ দেয়া হয়।

এছাড়া ছাড়া গুজব প্রতিরোধে সকলকে কাজ করার জন্য নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। বর্তমানে পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে। যে দুজনকে জরিমানা করা হয়েছে তারা নিত্য পণ্যের দাম বেশী নেয়ায় জরিমানা করা হয়েছে। তবে যারা গুজব ছড়িয়ে মানুষদের কাছে থেকে অর্থ হাতিয়ে নিবে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

Leave a comment

উপরে