সিরাজগঞ্জে ভুল চিকিৎসায় প্রসুতি মা ও গর্ভের শিশুর মৃত্যু

সিরাজগঞ্জে ভুল চিকিৎসায় প্রসুতি মা ও গর্ভের শিশুর মৃত্যু

প্রকাশিত: ২৪-০৮-২০১৯, সময়: ১৬:৩৫ |
Share This

নিজস্ব প্রতিবেদক, সিরাজগঞ্জ : সিরাজগঞ্জের সলঙ্গা থানার হাটিকুমরুলে অবস্থিত আল মদিনা জেনারেল হাসপাতালে ভুল চিকিৎসায় প্রসুতি মা ও গর্ভের সন্তানের মৃত্যু হয়েছে। নিহত আঞ্জুয়ারা বেগম থানার (২২) থানার তেলকুপি রানী নগর গ্রামের শরিফুল ইসলামের স্ত্রী।

নিহতের শ্বশুর আবু তালেব অভিযোগ করে জানান, গত শুক্রবার সন্ধ্যায় তার প্রসুতি পুত্রবধূ আঞ্জুয়ারা বেগমকে ডেলিভারী করার জন্য হাসপাতালে নেয়া হয়। এরপর তাকে ওটিতে নিয়ে হাসপাতালের নার্সরাই চেতনা নাশক ইনজেকশন দেয়া হলে রাতে মারা যায়। তখন আমরা তার অবস্থা জানতে চাইলে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ তালবাহানা শুরু করে এবং একপর্যায়ে তারা আমাদের উত্তেজিত হয়ে গালিগালাজ করে। তারপর বলা হয় রোগী মারা গেছে নিয়ে যান। পরে লাশ আমরা বাড়িতে নিয়ে আসি। মুলত ভুল চিকিৎসার কারনেই তার ও গর্ভের শিশু মারা গেছে। শনিবার সকালে তাকে দাফন করা হয়েছে।
এদিকে বিষয়টি জানতে সরেজমিনে রোগীর বাড়ি তেলকুপি রানী নগরে গেলে দেখা যায় বাড়িটিতে স্বজনদের ভীড়। সকালে রাশ দাফন করা হয়েছে। তখন হাসপাতালে ঘটনার সময় রোগীর সাথে থাকা মনতাজ প্রামানিকের স্ত্রী চাচী শ্বাশুরী দাই শহের বানু জানান, হাসপাতালে যখন রোগীর শোচনীয় অবস্থা তখন আমি এগিয়ে গেলে নার্সরা আমাকে গালী দিয়ে বলে বদজাত মহিলা কোন থিকা আইছে। তখন ওদের বলি আমি দাইয়ের কাজ করি অনেক কিছুই বুঝি। তখণ কোন তার ব্যাথা অসুখ কিছুই ছিলনা। এরপর সুস্থ্য রোগীকে নিয়ে তারা ওটিতে সিরাজ করতে যায়। আমার ধারনা, অবসের ইনজেকশন দেয়ার কারনেই সে মারা গেছে। এতে ভুল চিকিৎসাই দায়ী।
এদিকে ভুল চিকিৎসায় রোগীর মৃত্যুর ঘটনাটি ধামাচাপা দিতে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ উঠে পড়ে লেগেছে বলে অভিযোগ উঠেছে।
রোগী মৃত্যুর বিষয়ে হাসপাতালের ব্যবস্থাপনা পরিচালক শামীম রেজা জানান, আমি এ্যানেস্থিতিয়া চিকিৎসক নিয়ে আমি হাসপাতালে যাচ্ছিলাম। তখণ শুনি রোগী মারা গেছে।
এ ব্যাপারে সিরাজগঞ্জের সিভিল সার্জন জাহিদুল ইসলাম ও সলঙ্গা থানার ওসি তাজুল হুদা জানান, বিষয়টি আমরা অবহিত নই। তবে অভিযোগ পেলে দোষীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Leave a comment

উপরে