গৃহবধূকে গণধর্ষণের দায়ে ৬ যুবকের যাবজ্জীবন

গৃহবধূকে গণধর্ষণের দায়ে ৬ যুবকের যাবজ্জীবন

প্রকাশিত: ১৪-০৫-২০১৯, সময়: ১৭:৩৩ |
Share This
নিজস্ব প্রতিবেদক, সিরাজগঞ্জ : সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরে নাজমা খাতুন নামে এক গৃহবধুকে গণধর্ষণের অভিযোগে ৬ যুবককে যাবজ্জীবন কারাদন্ড প্রদান করেছে আদালত।
একই সাথে এক লাখ টাকা করে জরিমানা অনাদায়ে আরো এক বছরের কারাদন্ড প্রদান করা হয়েছে। বুধবার দুপুরে সিরাজগঞ্জ নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনাল-১ এর বিচারক ফজলে খোদা মোঃ নাজির এ রায় প্রদান করেন।
এই আদালতের সহকারী পাবলিক প্রসিকিউটর (এপিপি) আনোয়ার পারভেজ লিমন এতথ্য নিশ্চিত করেছেন।
দন্ডপ্রাপ্তরা হলেন, শাহজাদপুর উপজেলার দরগার চর নতুন পাড়া গ্রামের ইমান প্রামানিকের ছেলে তোতা মিয়া (২৭),  দারিয়াপুর গ্রামের লাল চঁানের ছেলে আলহাজ (২৮), একই গ্রামের আবদুল আজিজের ছেলে আলমগীর হোসেন (৩২), নলুয়াপাড়া গ্রামের আবদুর রহমানের ছেলে বুলবুল (৩০), পুকুরপাড় গ্রামের হোসেন আলীর ছেলে জুয়েল রানা (২২), দারিয়াপুর নতুন পাড়া গ্রামের আইয়ুব আলীর ছেলে রতন (২৩)।
মামলার বিররনীতে উল্লেখ করা হয়েছে, ২০১৬ সালের ২৬ ফেব্রুয়ারী শাহজাদপুর উপজেলার দরগার চর গ্রামের ফরিদ সরকারের স্ত্রী নাজমা খাতুন (২৮) রাতে তার পিতার সাথে দরগাপাড়া মাসুম বিল্লাহ এর বাড়িতে ওরস শুনতে যায়। রাত দশটায় নাজমা তার পিতার সাথে বাড়ি ফিরলে রাস্তায় তার স্বামীর সাথে দেখা হয়। পরে তার স্বামী তাকে বাড়ির দিকে নিয়ে গেলে দরগার চর করতোয়া নদী ঘাটে পৌছলে আসামীরা নাজমার স্বামীকে মারপিট করে তাড়িয়ে দিয়ে নাজমাকে পালাক্রমে গণধর্ষণ করে।
এসময় তার চিৎকারে স্থানীয়রা ঘটনাস্থলে পৌছে বুলবুল, জুয়েল রানা ও রতনকে আটক করে পুলিশে দেয়। এঘটনায় নাজমা খাতুন বাদী হয়ে ৬ জনকে আসামী করে শাহজাদপুর থানায় মামলা দায়ের করেন। মামলার স্বাক্ষ্য প্রমান শেষে আজ এরায় প্রদান করে আদালত।




উপরে