বরেন্দ্রে ৫০ হাজার হেক্টর জমিতে পেঁয়াজ চাষের সম্ভবনা

বরেন্দ্রে ৫০ হাজার হেক্টর জমিতে পেঁয়াজ চাষের সম্ভবনা

প্রকাশিত: ২৩-১১-২০১৯, সময়: ২০:০৩ |
Share This

আসাদুজ্জামান মিঠু, তানোর : আমনের মৌসুম শেষ না হতেই রবিশস্য মৌসুম শুরু হয়েছে বরেন্দ্র অঞ্চলে। কৃষকেরা একদিকে ঘরে ধান তোলাতে ব্যস্ত,অন্যদিকে সরিষা, মুসুর, পেঁয়াজ, আলুসহ রবিশস্য বোপন শুরু করেছেন জরেসরে।

তবে রবিশস্য মৌসুমে বরেন্দ্র অঞ্চলে এবার পেঁয়াজ চাষে রেকর্ড গড়ার সম্ভবনা রয়েছে। দেশের ইতিহাসে এবার পেঁয়াজের মূল্য বৃদ্ধি রেকর্ড গড়ার কারণে বরেন্দ্র অঞ্চলে প্রায় ৯০ ভাগ কৃষক চলতি মৌসুমে পেঁয়াজ চাষাবাদ করবে বলে আগ্রহী হয়ে উঠেছে। এছাড়াও কৃষকদের এবার সরকারী ভাবে পেঁয়াজ চাষের প্রনোদনা দেয়া হবে।

এরই মধ্যে বরেন্দ্রের মাঠে মাঠে কৃষকেরা পেঁয়াজের বীজ চারা করার জন্য বোপন করে রেখেছেন। এখন চলছে কৃষকদের পেঁয়াজ চাষে জোর প্রস্ততি। আর কয়দিন পরেই পুরোদমে শুরু হবে পেঁয়াজের চারা রোপন।

এদিকে রাজশাহীঞ্চলের অনেক স্থানে চার হাজার ৬০ হেক্টর জমিতে অগ্রিম পেঁয়াজ চাষ হয়েছে। আর কয়দিনের মধেই পেঁয়াজ উঠতে শুরু করবে।

রাজশাহী আঞ্চলিক কৃষি সম্প্রাসারণ অফিসের তথ্য অনুযায়ী,চলতি রবি মৌসুমে রাজশাহী অঞ্চলে, রাজশাহী, নাটোর, নওগাঁ ও চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলায় গত বছর পেঁয়াজ চাষে লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে ২৫ হাজার ২০০ হেক্টর জমি। চলতি মৌসুমে এ হিসাব দ্বিগুণ হতে পারে বলে জানা তারা।

যদিও আগের বছরের লক্ষ্যমাত্রা পুরণ হলে পেঁয়াজ উৎপাদন হবে তিন লাখ ২২ হাজার ৩০০ মেট্রিটন। চলতি বছর তা বেড়ে ৫০ হাজার হেক্টর চাষ হলে উৎপাদন হবার সম্ভবনা রয়েছে প্রায় ছয় লাখ মেটিট্রনের উপরে। আর এ অঞ্চলে বর্ষা মৌসুমে পেঁয়াজ চাষ হয়েছে চার হাজার ৬০ হেক্টর জমিতে।

তবে মাঠ পর্যায়ের কৃষি কর্মকর্তা জানান,রাজশাহীঞ্চলের গত বছর যে ২৫ হাজার লক্ষ্যমাত্রার যে হিসাব রয়েছে তা চলতি রবি মৌসুমে বেড়ে ৫০ হাজার হেক্টর জমিতে ছাড়াতে পারে। কারণ এ বছর পেঁয়াজে দাম দেখে বরেন্দ্র অঞ্চলে প্রায় ৯০ ভাগ কৃষক চাষ করার প্রস্ততি নিচ্ছেন। কেউ বাড়ি খাওয়ার জন্য কেউ বা বানিজ্যিক ভাবে এবার পেঁয়াজ চাষের আগ্রহ দেখাচ্ছে।

রাজশাহীর তানোর উপজেলার মুণ্ডুমালা পৌর এলাকার পাঁচন্দর স্কুলপাড়া গ্রামের কৃষক রেজা এবার প্রথম পেঁয়াজ চাষ করবেন। এর জন্য তিনি দুই সপ্তহ আগে বীজ বোপন করেছেন।

শুক্রবার কথা হয় কৃষক রেজার সাথে। তিনি বলেন, প্রতি বছর আমন ধান কেটে কিছু জমিতে সরিষা চাষ করতাম। বর্তমানে বাজারে পেঁয়াজের আকাশ ছোঁয়া দাম দেখে তিনি বেশ আগ্রহী হয়ে চলতি মৌসুমে অন্য রবিশস্যর পাশাপাশি এবার ১০ শতক জমিতে পেঁয়াজ চাষ করবেন বলে প্রস্ততি নিয়েছেন। এজন্য নিজ ক্ষেতে ইতিমধ্যে তিনি পেঁয়াজ বীজ বোপন করে রেখেছেন বলে জানান তিনি।

পেঁয়াজ চাষে এমন প্রস্ততি শুধু তানোর কৃষক রেজা একাই নয়, বরেন্দ্র অঞ্চলে শত শত কৃষক এবার পেঁয়াজ চাষের জোর প্রস্ততি নিয়ে রেখেছেন। অনেকে বীজ বোপন করেছেন। এজন্য শুরুতেই এবার পেঁয়াজ বীজ বাজারে সংকটও দেখা দিয়ে ছিল।

রাজশাহীর তানোর উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা শামিমুল ইসলাম বলেন,রবি মৌসুমে অন্য বছর কৃষকেরা স্বাভাবিক ভাবে পেঁয়াজ চাষ করলেও চলতি বছর তা ব্যাপক আকারে পেঁয়াজ চাষের সম্ভবনা রয়েছে বরেন্দ্রে মাঠে। তিনি আরো বলেন, কৃষকেরা পেঁয়াজ চাষে এত আগ্রহী হয়ে উঠেছে যে বাজারে এবছর পেঁয়াজ বীজ সংকটও দেখা দিয়েছিল যা অন্য কোন বছর হয়নি।

উপরে