গোদাগাড়ীতে বোরো ধানের চারা স্বাভাবিক

গোদাগাড়ীতে বোরো ধানের চারা স্বাভাবিক

প্রকাশিত: ১২-০৩-২০১৮, সময়: ২১:৩৪ |
Share This

নিজস্ব প্রতিবেদক, গোদাগাড়ী : রাজশাহীর গোদাগাড়ীতে আগাছানাশক বিষ প্রয়োগ করে ক্ষতিগ্রস্থ বোরো ধানের চারা গাছ মরেনি, স্বাভাবিক হতে শুরু করেছে। গোদাগাড়ীর গোগ্রাম ইউনিয়নের জগপুর-বিড়ইল এলাকার ক্ষতিগ্রস্থ কৃষকদের অভিযোগ, বোরো ধানের জমিতে ধানের চারা লাগানোর পরে এসিআই কোম্পানীর জাম্ব নামের আগাছা নাশক বিষ প্রয়োগের ফলে চারাগুলো দুর্বল হয়ে হলদে রং ধারণ করে। কয়েকদিন পর কৃষকরা ঐ কোম্পানীর লোকজন ও কৃষি অফিসারকে জানালে তারা এসে ধানের খেতগুলো পরিদর্শন করেন এবং জমিতে পানি সেচ, সালফক্স, ফ্লোরাসহ অন্যান্য ঔষধ প্রয়োগ করতে বলেন। এগুলো দেয়ার পর ধানের সবুজ চেহারা ফিরে এসেছে এবং গোছ নিতে শুরু করেছে।

সোমবার দুপুরে জগপুর-বিড়ইল এলাকার কৃষক মুন্টুর ছেলে ফারুক, আনসারসহ কয়েকজন কৃষকের জমির ধান খেতে গিয়ে দেখা যায়, ধানের চারা বেশ সতেজ। তারা বলেন, কোম্পানীর পক্ষ থেকে ক্ষতিগ্রস্থ কৃষকদের বিঘা প্রতি এক কেজি সালফক্স, ১’শ গ্রাম ফ্লোরা ফ্রি দেয়। জমিতে বিষ প্রয়োগের পরে যে সমস্যা হয়েছিল তা এখন অনেকটা স্বাভাবিক হতে শুরু করেছে,কুরশী বের হচ্ছে। তবে কয়েকটা পানি সেচ ও সারও বেশী দিতে হয়েছে। ফলন একটু কম হওয়ার আশংকা করছেন অনেকে। কৃষকদের দাবী, গরীব কৃষকদের প্রয়োজনীয় সার ও অন্যান্য ঔষধ দিয়ে তাদের সহযোগীতা করা হোক।

এদিকে জগপুর গ্রামের ডিলার এবাদুল জানান, কৃষকদের বিষের মাত্রা বেশী দেয়ার কারণে এবং বিষ দেয়ার সময় ও পরে কারো কারো জমিতে প্রয়োজনীয় পানি না থাকায় কিছুটা সমস্যা হয়েছিল। যেটা অন্য কোন আগাছানাশক বিষ দিলেও সাধারনত ধানের চারা এরকমই হয়।

গোদাগাড়ী উপজেলার গোগ্রাম ব্লকের উপসহকারী কৃষি অফিসার ফিরোজ জানান, তার ব্লকের ৫০/৬০ বিঘা জমিতে আগাছানাশক দুর্বা, শ্যামা ঘাস মারার বিষ প্রয়োগের কারণে কৃষকদের ধানের চারার ক্ষতি হয়েছিল বলে জানালে তাদের জমি পরিদর্শন করে পরামর্শ দেয়া হয়। ডোজ বেশী এবং সময়মত না দেয়ায় ধানগাছগুলো স্বাভাবিক হতে সময় নেয়, তবে কোন জমির ধানের চারা মরেনি।

এসিআই কোম্পানীর রাজশাহী টেরিটরি এক্সিকিউটিভ অফিসার সারওয়ার ফিটু বলেন, সব এলাকায় নয়, শুধু ঐ এলাকায় সময়মত কৃষকের জমির পরিচর্যা ও প্রয়োজনীয় পানি না থাকার কারণে এবং বিরুপ আবহাওয়া থাকায় বোরো খেতের ধানের চারার কিছুটা সাময়িক ক্ষতি হয়েছিল। মাঠ পর্যায়ে পরিদর্শন করে তাদের পরামর্শ দেয়া হয়েছে। কিছুটা সময় লাগলেও আবার নতুন করে ধানের চারার কুরশি গজাতে শুরু করেছে।

আরও খবর

  • পবায় নকল নবীস বিদ্যুৎ স্পৃষ্টে নিহত
  • পুঠিয়ায় আমের ট্রাকে ফেনসিডিল, ২ যুবক গ্রেপ্তার
  • তানোরে যৌতুক মামলার সাজাপ্রাপ্ত আসামী গ্রেপ্তার
  • রাসিকে প্রচারণার বিরুদ্ধে অভিযানে নামছে ইসি
  • বাগমারায় ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স এসোসিয়েশনের পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠন
  • পুঠিয়ায় গ্রেপ্তার বিএনপির ৯ নেতাকর্মী কারাগারে
  • গোদাগাড়ীতে গাছের চারা বিতরণ
  • গোদাগাড়ীতে র‌্যাবের অভিযানে ৭৫ মাদকসেবীর কারাদন্ড
  • রাজশাহীতে আম ১২ টাকা কেজি!
  • রাজশাহীতে বিএনপির ৯ নেতাকর্মী গ্রেপ্তার
  • ব্যাংক কর্মকর্তার প্রতারণায় প্রতিবন্ধী পরিবার নিঃস্ব
  • বাঘায় বিদ্যুৎ স্পৃষ্টে নিহত ১
  • বাঘায় মেয়ের হত্যার অভিযোগে বাবার মামলা দায়ের!
  • আ.লীগ সভানেত্রীকে মেম্বারের কু-প্রস্তাব, থানায় অভিযোগ
  • চারঘাটে ফেন্সিডিল ও ওয়ারেন্টভূক্তসহ ৫ আসামী আটক


  • উপরে